মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:০৯ পূর্বাহ্ন

আর ৮১ (ব্যথা নাশক ড্রপস)

আরোগ্য হোমিও হল / ৬৪ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশ কালঃ মঙ্গলবার, ২ এপ্রিল, ২০২৪, ৫:৩২ অপরাহ্ন
Dr.Reckeweg R81  আর ৮১ (ব্যথা নাশক ড্রপস)

Dr.Reckeweg R81/  আর ৮১ (ব্যথা নাশক ড্রপস)
আর ৮১ (ব্যথা নাশক ড্রপস)
R 81 (pain killer drops)
আরোগ্য হোমিও হল এ সবাইকে স্বাগতম। আশা করছি, সবাই ভালো আছেন। আজ আমরা এখানে আলোচনা করবো “ আর ৮১ (ব্যথা নাশক ড্রপস)” কম্বিনেশন হোমিওপ্যাথি ঔষধ নিয়ে আজকে জনবো, এটা সবার জানা জরুরী! তো আর কথা নয় – সরাসরি মূল আলোচনায়।
প্রস্তুত প্রণালী : Dr.Reckeweg R 81/ জার্মান কম্বিনেশন হোমিওপ্যাথিক ঔষধ।
ব্যবহার : মাথাব্যথা, স্নায়বিক ব্যথা, মায়ালজিক ব্যথা, আর্থ্রালজিয়া ব্যথায় ব্যবহার করা হয়।

আরও পড়ুন –  অ্যাডাল-৪ (আর্থ্রাইটিস, পেশীর জয়েন্টের ব্যথা)

আর ৮১ ড্রপসটির কার্যকারিতা : এটিএকটি হোমিওপ্যাথিক ব্যথানাশক ঔষধ। এটি নিউরালজিক এবং পেশী ব্যথা এবং মাথাব্যথায় কার্যকর । এটিতে অ্যানামির্তা ককুলাস, অ্যারেনিয়া ডায়াডেমা ইত্যাদির মতো গুরুত্বপূর্ণ উপাদান থাকায় এটি স্নায়ুতন্ত্রের ব্যথা (নার্ভের সাথে বিরতিহীন ব্যথা), মাথাব্যথা, মায়ালজিক ব্যথা (পেশীতে ব্যথা) ও আর্থ্রালজিয়া (জয়েন্টে ব্যথা) উপর কাজ করে।
আর ৮১ ড্রপসটি মুল উপাদান মিশ্রণ:
(ক) এরেনিয়া ডাইয়েডিমা D4 (Aranea Diadema D4)|
(খ) ককুলাস ইন্ডিকাস D4 (Anamirta CocculusD4)|
(গ) জেলসিমিয়াম উ৩ D3 (Gelsemium D3)|
(ঘ) জিঙ্কগো বিলোবা D3 (Ginkgo Bilobathe D3)|
(ঙ) সাইক্ল্যামেন ইউরোপিয়াম D4 (Cyclamen Europeum D4)|
(চ) সিমিসিফুগা রেসমোসা D4 (Cimicifuga Racemosa D4)|
(ছ) সিট্রুলাস কোলোসিন্থিস D4 Citrullus Colocyntis d4)|
(জ) স্লিমিয়াস্লিমিয়া D3 (Slimia D3)|

আরও পড়ুন –  অ্যাডাল-৩৯ (সায়াটিকা, বাত ব্যথা)

আর ৮১ ড্রপসটি মুল উপাদানের কার্যকারিতা :
(১) এরেনিয়া ডাইয়েডিমা (Aranea Diadema) : ডিসারটেরিওটোনি (অস্বাভাবিক রক্তচাপ), বারবার স্নায়বিক ব্যথা ও বেদনাদায়ক আর্থ্রালজিয়ার চিকিৎসায় ব্যবহার হয়।
(২) ককুলাস ইন্ডিকাস (Anamirta Cocculus) :  বিভিন্ন পরিস্থিতিতে সৃষ্ট ভার্টিগো (ক্লান্তির সংবেদন), অ্যালগোস্পাজম (বেদনা দ্বারা উৎপাদিত খিঁচুনি), অক্সিপিটাল (অসিপিটাল হাড়ের সাথে সম্পর্কিত) মাথাব্যথা ও মাসিক ব্যথায় ।
(৩) জেলসিমিয়াম (Gelsemium) :  মাথাব্যথা ও খিঁচুনি (ফিট) হওয়ার প্রবণতার চিকিৎসায় ব্যবহার হয়।
(৪) জিঙ্কগো বিলোবা (Ginkgo Bilobathe) : বদনাদায়ক লেখকদের ক্র্যাম্প ও মাথাব্যথার চিকিৎসা করে।
(৫) সাইক্ল্যামেন ইউরোপিয়াম (Cyclamen Europeum) : মাইগ্রেন, মাথাব্যথা এবং বেদনাদায়ক মাসিক ব্যাধির চিকিৎসা উপকারী।

আরও পড়ুন –  অ্যাডাল-৫৫ (ঘাড় ও পিঠে ব্যথা)

(৬) সিমিসিফুগা রেসমোসা (Cimicifuga Racemosa) :  মায়ালজিক, পেশী ব্যথা, ও মেরুদণ্ডের কলামের কারণে হয়, গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল ট্র্যাক্টের অ্যালগোস্পাজম অথবা মায়োকার্ডিয়াল স্প্যাজম, মহিলাদের যৌনাঙ্গ এবং পিত্তথলির অঞ্চলে ব্যথায় উপকারী।
(৭) সিট্রুলাস কোলোসিন্থিস(Citrullus Colocyntis) :  পিত্তথলি, গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল ট্র্যাক্ট ও মূত্রনালীর অঙ্গগুলির অ্যালগোস্পাজমের চিকিৎসা করে। এটি ইসচিয়াম (ইস্কিয়ালজিয়া), স্নায়ুর প্রদাহ (পেরিফেরাল স্নায়ুর প্রদাহ) ও বিশেষত মুখের স্নায়বিক ব্যথারও চিকিৎসায় কার্যকর ।
(৮) স্লিমিয়াস্লিমিয়া  (Slimia) :  তীব্র কার্ডিটিস (হৃদপিণ্ডের প্রদাহ), স্টেনোকার্ডিয়া (বুকে তীব্র সংকুচিত ব্যথা), মাথাব্যথা ও স্নায়ুবিক ব্যথার চিকিৎসা করে।

আরও পড়ুন – অ্যাডাল-৭৫ (আঘাত, ক্ষত, বাত, জয়েন্টের ব্যথা)

আর ৮১ ঔষধ সেবন বিধি : প্রাপ্ত বয়স্করা জন্য ১৫ থেকে ২০ ফোঁটা, শিশুরা ৭ থেকে ১০ ফোঁটা ঔষধ ১/৪ কাপ পানিতে মিশিয়ে দিনে ৩ বার অথবা রেজিষ্টার্ড হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসকের পরামর্শে সেবন করতে হবে।
চিকিৎসকের কিছু পরারর্শ : ওষুধ খাওয়ার সময় মুখের কোনো তীব্র গন্ধ যেমন কফি, পেঁয়াজ, শিং, পুদিনা, কর্পূর, রসুন ইত্যাদি এড়িয়ে চলুন। খাবার/পানীয়/অন্য কোনো ওষুধ এবং অ্যালোপ্যাথিক ওষুধের মধ্যে অন্তত আধা ঘণ্টার ব্যবধান রাখুন।
সতর্কতা : গর্ভবতী মা অথবা দুগ্ধদানকারী মায়েরা ঔষধ সেবনের পূর্বে রেজিষ্টার্ড হোমিওপ্যাথি চিকিৎসকের পরামর্শে ঔষধ সেবন করা উত্তম।

আরও পড়ুন – কেন্ট ৩০ মলম (রিমিটয়েড ও আর্থ্রাইটিসে কার্যকর)

শর্তাবলী : কম্বেনেশন হোমিওপ্যাথি ঔষধগুলি সাধারণত লক্ষণে উপর ভিভি করে ব্যবহার করা হয়। মনে রাখবেন হোমিওপ্যাথিক সদৃশ্য বিধান একটি চিকিৎসা ব্যবস্থা, বেশি লক্ষণে সঙ্গে মিলিলে তবেই ব্যবহার যোগ্য। তা না হলে অবস্থার উপর নির্ভর করে ফলাফল পরিবর্তিত হতে পারে।
পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া : হোমিওপ্যাথি সর্বোত্তম চিকিৎসা প্রদান করে কারণ এটি নিরাপদ এবং পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া মুক্ত।
ঔষধ সংরক্ষণ : সুস্ক ও শীতল স্থানে সুগন্ধ-দুগন্ধ, আলো-বাতাস থেকে দুরে, শিশুদের নাগালের বাহিরে রাখুন।
আরোগ্য হোমিও হল এডমিন : আজকের আলোচনা এখানেই শেষ করলাম। আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছেন। নতুন কোনো স্বাস্থ্য টিপস নিয়ে হাজির হবো অন্য দিন। এই ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তথ্যগুলো কেবল স্বাস্থ্য সেবা সম্বন্ধে জ্ঞান আহরণের জন্য। অনুগ্রহ করে রেজিষ্টার্ড হোমিওপ্যাথিক পরামর্শ নিয়ে ওষুধ সেবন করুন। চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ সেবনে আপনার শারীরিক বা মানসিক ক্ষতি হতে পারে। প্রয়োজনে, আমাদের সহযোগিতা নিন।  এই ওয়েব সাইটটি কে কোন জেলা বা দেশ থেকে দেখছেন “লাইক – কমেন্ট” করে জানিয়ে দিন। যদি ভালো লাগে তবে “শেয়ার” করে আপনার বন্ধুদের জানিয়ে দিন।  সবাই সুস্থ্য, সুন্দর ও ভালো থাকুন। নিজের প্রতি যত্নবান হউন এবং সাবধানে থাকুন।  আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।


এ জাতীয় আরো খবর.......
Design & Developed BY FlameDev