শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ০৪:১৩ অপরাহ্ন

রাউওলফিয়া সার্পেন্টিনা (1X Q) হোমিওপ্যাথি মাদার টিংচার

আরোগ্য হোমিও হল / ২২ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশ কালঃ বৃহস্পতিবার, ১১ জুলাই, ২০২৪, ১২:৩২ পূর্বাহ্ন
রাউওলফিয়া সার্পেন্টিনা 1X (Q) হোমিওপ্যাথি মাদার টিংচার
রাউওলফিয়া সার্পেন্টিনা 1X (Q) হোমিওপ্যাথি মাদার টিংচার

Rauwolfia Serpentina (1X -Q) Homeopathy Mother Tincture

রাউওলফিয়া সার্পেন্টিনা (1X -Q) হোমিওপ্যাথি মাদার টিংচার

আরোগ্য হোমিও হল এ সবাইকে স্বাগতম। আশা করছি, সবাই ভালো আছেন। আজ আমরা এখানে আলোচনা করবো “ রাউওলফিয়া সার্পেন্টিনা (1X Q) হোমিওপ্যাথি মাদার টিংচার” হোমিওপ্যাথি ঔষধ নিয়ে আজকে জনবো, এটা সবার জানা জরুরী! তো আর কথা নয় – সরাসরি মূল আলোচনায়।

রাউওলফিয়া সার্পেন্টিনা (1X -Q)হোমিওপ্যাথি মাদার টিংচার সম্পর্কে তথ্য

পরিচিতি : রাউওলফিয়া সার্পেন্টিনা (Rauwolfia Serpentina) ভারতীয় সাপের মূল, সর্পগন্ধা, ছোটচাঁদ, ইয়িন ডু সে মু নামে পরিচিত।
রাউওলফিয়া সার্পেন্টিনা ইঙ্গিত : উচ্চ রক্তচাপ এবং সংশ্লিষ্ট লক্ষণ যেমন – অনিয়মিত স্পন্দন, মানসিক উত্তেজনা বৃদ্ধি, বিরক্তি ও অস্থিরতা।

প্রস্তুত প্রণালী : রাউওলফিয়া সার্পেন্টিনা (Rauwolfia Serpentina) উচ্চ রক্তচাপের জন্য সর্বাধিক ব্যবহৃত হোমিওপ্যাথিক ওষুধগুলির মধ্যে এটিও একটি। এটি Apocynaceae পরিবারের অন্তর্গত এবং উপ-হিমালয় পর্বতমালা এবং ভারতের পশ্চিমঘাট অঞ্চলে পাওয়া যায়। ৫ এটি আনুষ্ঠানিকভাবে ভারতের হোমিওপ্যাথিক ফার্মাকোপিয়া এবং জার্মান হোমিওপ্যাথিক ফার্মাকোপিয়া উভয়ের দ্বারা আচ্ছাদিত। সবচেয়ে সুপরিচিত। এর হাইপোটেনসিভ এবং নিউরো-ডিপ্রেসিভ ক্রিয়াকলাপ প্রতিষ্ঠিত হয়। ৮ এর মূল থেকে একটি হোমিওপ্যাথিক টিংচার তৈরি করা হয়।

বায়ো কম্বিনেশন ২৫

রাউওলফিয়া সার্পেন্টিনার ব্যবাহার :

রাউওলফিয়া সার্পেন্টিনা (Rauwolfia Serpentina) হোমিওপ্যাথি মাদার টিংচার রোগীদের উচ্চ রক্তচাপ, অস্থিরতা এবং নিদ্রাহীনতা কমাতে সাহায্য করে। এটি স্নায়ুতন্ত্রকে শান্ত করে এবং যারা এতে ভুগছেন তাদের মধ্যে উদ্বেগ কমায়। রাউওলফিয়া সার্পেন্টিনা হোমিওপ্যাথি মাদার টিংচার এর মত প্রচুর পরিমাণে অ্যালকালয়েড রয়েছে এবং এতে হাইপোটেনসিভ এবং নিউরো-ডিপ্রেসিভ বৈশিষ্ট্য রয়েছে।

আরও পড়ুন –  আর ৮৫ (উচ্চ রক্তচাপ কমায়)

রাউওলফিয়া সার্পেন্টিনার কার্যকারিতা :

এই প্রতিকারটি উচ্চ রক্তচাপ পরিচালনা করতে কার্যকর। এটি এর সাথে সম্পর্কিত উপসর্গগুলি যেমন – অনিয়মিত স্পন্দন, মানসিক উত্তেজনা বৃদ্ধি, কেন্দ্রীয় স্নায়ুতন্ত্রের বিরক্তিকর অবস্থা, হালকা বিষণ্নতা, বিরক্তি এবং অস্থিরতা দূর করে। এটি উচ্চ রক্তচাপের ক্ষেত্রে জাহাজগুলিতে চিহ্নিত এথেরোম্যাটাস পরিবর্তন ছাড়াই অত্যন্ত কার্যকর।

রাউওলফিয়া সার্পেন্টিনা উচ্চ রক্তচাপ এবং স্নায়ুতন্ত্রের জ্বালা নির্দেশিত হয়। এটি কেন্দ্রীয় স্নায়ুতন্ত্রের জ্বালা দ্বারা উৎপাদিত উন্মাদনাও নিরাময় করতে সাহায্যকরে। স্নায়ুতন্ত্রের লক্ষণগুলি হল হতাশা, বিরক্তি এবং অস্থিরতা। এটি রেচক, মূত্রবর্ধক এবং সাপের বিষের প্রতিষেধক হিসাবেও ব্যবহারিত হয়। এটি প্রসবের সময় জরায়ুর সংকোচনকে উদ্দীপিত করে এবং ভ্রূণের বহিষ্কার প্রচারের জন্য ব্যবহৃত হয়। এটির উপশমকারী কার্যকারিতা রয়েছে এবং উচ্চ রক্তচাপ কমাতে সাহায্য করে। এটি সিজোফ্রেনিয়ার চিকিৎসায়ও ব্যবারিত হয়। এটি কঠিন একাগ্রতা এবং বিভ্রান্ত মনের ব্যক্তির জন্য উপযুক্ত। লক্ষণগুলি মানসিক পরিশ্রম করলে আরও খারাপ হয় এবং স্মৃতিশক্তি দুর্বল।

আরও পড়ুন –  এইচ আর – ১১ (উচ্চ রক্তচাপের চিকিৎসায় কার্যকর)

রাউওলফিয়া সার্পেন্টিনা রোগীর লক্ষণ :
(১) এই প্রতিকার আপনাকে আপনার রক্তচাপ কমাতে সাহায্য করে
(২) স্নায়ুকে শান্ত করতে সাহায্য করে।
(৩)এটি মাথা ঘোরা, বুকে ব্যথা এবং ঝাপসা দৃষ্টির মতো লক্ষণগুলি থেকে মুক্তি দেয়।
(৪) এটি মুখ ঝাড়া দিয়ে নাকের মধ্যে শুষ্কতা ও ভিড় নিরাময় করে।
(৫) প্রস্রাব প্রচুর ও মূত্রনালীতে জ্বলা ও ব্যথা।
(৬) এটি রক্তপাত অর্শ্বরোগ নিরাময় করে।
(৭) এটি আপনার রক্তনালীগুলিকে প্রসারিত করে এবং খিঁচুনি প্রতিরোধ করে শিথিল করে।

 

রাউওলফিয়া সার্পেন্টিনা Q হোমিওপ্যাথি মাদার টিংচার বিভিন্ন স্বাস্থ্য অবস্থার সমাধান করে। এটি প্রধানত উচ্চ রক্তচাপ কমাতে এবং ঘুমের গুণমান উন্নত করতে ব্যবহারিত হয়। এটি স্নায়ুকেও শান্ত করে ও উদ্বেগ কমায়। এটি অনিয়মিত হৃদস্পন্দন, অত্যধিক মানসিক সংবেদনশীলতা, স্নায়ুতন্ত্রের জ্বালা এবং অস্থিরতার সাথে সাহায্য করতে পারে।

রাউওলফিয়া সার্পেন্টিনা রোগীর প্রোফাইল :
রাউওলফিয়া সার্পেন্টিনা (Rauwolfia Serpentina) এটি মানসিক ব্যাধিগুলির জন্য একটি প্রাকৃতিক প্রতিকার যা আগ্রাসন, কান্নাকাটি, দৌড়ানো, প্রহার ও অনিদ্রা সৃষ্টি করে এবং এটি মনকে শান্ত করতে মেজাজ উন্নত করতে সাহায্য করে।

আরও পড়ুন –  বায়ো-কম্বিনেশন ৯ (আমাশয়)

(ক) মল সম্পর্কিত সমস্যা
এটি আমাশয় রোগে কার্যকরী।
এটি আলগা মল, রক্তপাত ও পেটে ব্যথা কমায়।
এটি ডিহাইড্রেশন ও সংক্রমণ প্রতিরোধ করে।

(খ) মহিলা প্রজনন সিস্টেমের সাথে সম্পর্কিত সমস্যা
এটি মাসিকের সমস্যায় এটি একটি উপকারী।
এটি রক্ত প্রবাহ নিয়ন্ত্রণ করে এবং তলপেটে ক্র্যাম্প ও থ্রবিং ব্যথা কমায়।
এটি মেজাজের পরিবর্তন ও বিরক্তিকরতা থেকে মুক্তি দেয়।

আরও পড়ুন – আর ১০ (ক্লিম্যাক্টেরিক, অনিয়মিত মাসিকের ড্রপস)

(গ) সংবহনতন্ত্রের সাথে সম্পর্কিত সমস্যা
রাউওলফিয়া সার্পেন্টিনা উচ্চ রক্তচাপের জন্য এটি একটি অত্যান্ত্য মূল্যবান ওষুধ।
এটিতে রয়েছে রিসারপাইন, যা রক্তনালীকে শিথিল করে এবং বুকের হৃদস্পন্দন কমায়।
এটি স্ট্রোক এবং হার্ট অ্যাটাকের মতো জটিলতা সমস্যা প্রতিরোধে সাহায্য করে।

(ঙ) ঘুমের সাথে সম্পর্কিত সমস্যা
রাউওলফিয়া সার্পেন্টিনা এটি একটি প্রাকৃতিক প্রশমক যা ঘুম আনতে সাহায্য করে।
যাদের অনিদ্রা এবং ঘুমাতে অসুবিধা হয় সে সব রোগীর জন্য এটি সহায়ক।
এটি আরামদায়ক ও সতেজ ঘুম প্রচার করে।

রাউওলফিয়া সার্পেন্টিনা ব্যবহারিতর শর্তাবলী

উদ্বেগ : উদ্বেগ, নার্ভাসনেস বা ভবিষ্যতে ঘটতে পারে এমন কিছু সম্পর্কে অস্বস্তির বোধ করে। এটি হার্টের স্পন্দন দ্রুত করে, আপনার হাতের তালু ঘামে, শরীর কাঁপে, বা আপনার মাথা ঘোরানোর মাধ্যমে শরীরকে প্রভাবিত করতে পারে। উদ্বেগজনিত ব্যাধিযুক্ত ব্যক্তিদের প্রায়শই অবাঞ্ছিত এবং বিরক্তিকর চিন্তাভাবনা থাকে যা তাদের নির্দিষ্ট পরিস্থিতি এড়াতে বাধ্য করে। উদ্বেগ ভয় থেকে আলাদা, যা একটি বাস্তব এবং তাৎক্ষণিক বিপদের প্রতিক্রিয়া।

আরও পড়ুন –   অ্যাডল-৮ (উচ্চ রক্তচাপ)

ডিহাইড্রেশন : এটি এমন একটি অবস্থা যা যখন ঘটে আপনার শরীর যতটা তরল গ্রহণ করে তার থেকে বেশি তরল হারায়৷ আপনার শরীরের মানবদেহে সঠিকভাবে কাজ করার জন্য যথেষ্ট তরল প্রয়োজন, কিন্তু আপনি ঘাম, বমি, ডায়রিয়া, জ্বর অথবা পর্যাপ্ত পানি পান না করার মাধ্যমে তরল হারাতে পারেন৷ ডিহাইড্রেশন সাধারণত যে কাউকে প্রভাবিত করতে পারে, তবে এটি তরুণ এবং বয়স্ক প্রাপ্তবয়স্কদের জন্য খুব বিপজ্জনক। ডিহাইড্রেশনের কারণে তৃষ্ণা, শুষ্ক মুখ, গাঢ় প্রস্রাব, শুষ্ক ত্বক, ক্লান্তি এবং মাথা ঘোরা ইত্যাদি লক্ষণ দেখা দিতে পারে। মারাত্মক ডিহাইড্রেশনের ফলে বিভ্রান্তি, অজ্ঞান হওয়া, শক এবং এমনকি মৃত্যুর মতো গুরুতর সমস্যা হতে পারে।
আমাশয়: এটি আপনার অন্ত্রে একটি সংক্রমণ যা ব্যথা, ডায়রিয়া, মলে রক্ত এবং কখনও কখনও জ্বর হতে পারে। বিভিন্ন জীবাণু, যেমন – ব্যাকটেরিয়া, প্রোটোজোয়া, কৃমি এবং ভাইরাস, এটিকে ধাক্কা দেয়। এটির কারণে আপনি জল হারাতে পারেন, তাই তরল পান করুন এবং ওষুধ সেবন করুণ। আপনি জীবাণুযুক্ত খাবার খেলে, জীবাণুযুক্ত জিনিস স্পর্শ করলে অথবা জীবাণু সহ জলে সাঁতার কাটলে আমাশয় হতে পারে। কিছু লোক অসুস্থ বোধ নাও করতে পারে বা পরে অসুস্থ বোধ করতে পারে। আমাশয় হলে আপনি কীভাবে ভাববেন তা নির্ভর করে আপনি কী ধরনের জীবাণু সংক্রমণ করেছে তার ওপর। উদাহরণস্বরূপ, ব্যাকটেরিয়াজনিত আমাশয় আপনাকে বমি বমি ভাব, বমি ও আপনার ডায়রিয়াতে শ্লেষ্মা অনুভব করতে পারেন।

 

অনিদ্রা : এটি এমন একটি অবস্থা যা ঘুমাতে কষ্ট করে ও আপনার দৈনন্দিন কাজকর্মকে প্রভাবিত করে। এটা শুধু খারাপ ঘুমের গুণমান থাকার চেয়ে বেশি, এটি একটি সমস্যা যা মারাত্মকভাবে আপনার স্বাস্থ্যকে প্রভাবিত করে। আপনি যদি পর্যাপ্ত সময় বিশ্রামের সুযোগ পেলেও অন্তত এক মাস সপ্তাহে অন্তত তিন রাত ঘুমাতে কষ্ট করেন তবে আপনার অনিদ্রা হয়।

অনিয়মিত হৃদস্পন্দন : অ্যারিথমিয়া হল এমন একটি অবস্থা যেখানে হৃদস্পন্দন গড় হারে অথবা ছন্দে হয় না, যার ফলে হয় টাকাইকার্ডিয়া (খুব দ্রুত), ব্র্যাডিকার্ডিয়া (খুব ধীর), এবঙ অনিয়মিত হৃদস্পন্দন। অ্যারিথমিয়ার একটি সাধারণ রূপ হল অ্যাট্রিয়াল ফাইব্রিলেশন, যার কারণে হৃৎপিণ্ড দ্রুত স্পন্দিত হয়। অ্যারিথমিয়াসের বিভিন্ন কারণ থাকতে পারে, যেমন – হার্ট অ্যাটাক, জন্মগত হার্টের ত্রুটি, ধূমপান, মানসিক চাপ অথবা নির্দিষ্ট কিছু থাকতে পারে।

আরও পড়ুন –  এইচ আর – ৪১ (অনিদ্রায় কার্যকর)

সতর্কতা : সঠিকভাবে ঔষধ সেবন না করলে উচ্চ রক্তচাপ হতে পারে।  ডোজ ১৫ থেকে ২০ ফোঁটা ঔষধ  পানির সঙ্গে সেবন করা উচিত বেশি ডোজ বিপজ্জনক হতে পারে এবং আতঙ্কিত প্রতিক্রিয়া সৃষ্টি করে, এর ফলে হার্ট অ্যাটাক হতে পারে এবং মৃত্যুর কারণ হতে পারে। লিভার, কিডনি, হৃদরোগে আক্রান্ত ব্যক্তি ও গর্ভবতী মহিলা, শিশু, বয়স্কদের চরম সতর্কতার সাথে এই ঔষধটি ব্যবহার করা উচিত।

সেবন বিধি : সেবন বিধি : অবস্থার উপর দুই ঘন্টা পর পর সেবন করা যেতে পারে। খাবারের আধাঘন্টা আগে ১০ থেকে ১৫ ফোঁটা ঔষধ আধা কাপ  পানিতে মিশিয়ে দিনে ৩ বার সেবন করুণ। ঔষধ সেবনে কিছু উন্নতি হলে ঔষধ সেবনে পরিমান কমিয়ে  দিনে দুইবার সেবন করুণ। অসুখের লক্ষণ গুলি সম্পুর্ণ অদৃশ্য না হওয়া পর্যন্ত সেবন করুণ। অথবা চিকিৎসকের নির্দেশ মেনে ঔষধ সেবন করতে হবে।চিকিৎসকের

কিছু পরারর্শ : ওষুধ খাওয়ার সময় মুখের কোনো তীব্র গন্ধ যেমন কফি, পেঁয়াজ, শিং, পুদিনা, কর্পূর, রসুন ইত্যাদি এড়িয়ে চলুন। খাবার/পানীয়/অন্য কোনো ওষুধ এবং অ্যালোপ্যাথিক ওষুধের মধ্যে অন্তত আধা ঘণ্টার ব্যবধান রাখুন। ওষুধ খাওয়ার সময় তামাক খাওয়া বা অ্যালকোহল পান করা এড়িয়ে চলুন।

অন্যান্য ঔষধ : আপনি অ্যালোপ্যাথি ওষুধ, আয়ুর্বেদিক ইত্যাদির মতো অন্যান্য ওষুধে থাকলেও ওষুধ খাওয়া নিরাপদ।

আরও পড়ুন –  আর ৩ (হার্টের দুর্বলতা, ব্লকেজ)

অন্যান্য ঔষধে  হস্তক্ষেপ : হোমিওপ্যাথিক ওষুধগুলি কখনই অন্য ওষুধের ক্রিয়াকলাপে হস্তক্ষেপ করে না।

বিশেষ সতর্কতা : সাধারণত গর্ভাবস্থায় এবং স্তন্যপান করানোর সময় ডাক্তারের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ খাওয়া উচিত নয়|

শর্তাবলী : মাদার টিংচার হোমিওপ্যাথি ঔষধগুলি সাধারণত লক্ষণে উপর ভিভি করে ব্যবহার করা হয়। মনে রাখবেন হোমিওপ্যাথিক সদৃশ্য বিধান একটি চিকিৎসা ব্যবস্থা, বেশি লক্ষণে সঙ্গে মিলিলে তবেই ব্যবহার যোগ্য। তা না হলে অবস্থার উপর নির্ভর করে ফলাফল পরিবর্তিত হতে পারে।

পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া : হোমিওপ্যাথি সর্বোত্তম চিকিৎসা প্রদান করে কারণ এটি নিরাপদ এবং পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া মুক্ত। তবে প্রতিটি ওষুধ চিকিৎসকের নিয়ম মেনে খেতে হবে।

ঔষধ সংরক্ষণ : সুস্ক ও শীতল স্থানে সুগন্ধ-দুগন্ধ, আলো-বাতাস থেকে দুরে, শিশুদের নাগালের বাহিরে রাখুন। ৩০ ডিগ্রি সেন্টিগ্রেড (৮৬ ডিগ্রি ফারেনহাইট) এর বেশি নয় একটি স্থির তাপমাত্রায় সংরক্ষণ করা উচিত।

ঔষধের গুণগতমাণ : এটি একটি প্রাকৃতিক পণ্য, এটি কখনও কখনও সামান্য বৃষ্টিপাত অথবা মেঘলা হতে পারে, কিন্তু এটি পণ্যের গুণমান এবং এর কার্যকারিতা প্রভাবিত করে না। যদি এটি ঘটে তবে পণ্যটি ব্যবহার করার আগে ভালভাবে ঝাঁকি নিন। একবার আপনি সীলটি ভেঙে ফেললে, ওষুধগুলি দ্রুত ব্যবহার করা উচিত।

2454

আরোগ্য হোমিও হল এডমিন : আজকের আলোচনা এখানেই শেষ করলাম। আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছেন। নতুন কোনো স্বাস্থ্য টিপস নিয়ে হাজির হবো অন্য দিন। এই ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তথ্যগুলো কেবল স্বাস্থ্য সেবা সম্বন্ধে জ্ঞান আহরণের জন্য। অনুগ্রহ করে রেজিষ্টার্ড হোমিওপ্যাথিক পরামর্শ নিয়ে ওষুধ সেবন করুন। চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ সেবনে আপনার শারীরিক বা মানসিক ক্ষতি হতে পারে। প্রয়োজনে, আমাদের সহযোগিতা নিন। এই ওয়েব সাইটটি কে কোন জেলা বা দেশ থেকে দেখছেন লাইককমেন্ট করে জানিয়ে দিন। যদি ভালো লাগে তবে শেয়ার করে আপনার বন্ধুদের জানিয়ে দিন। সবাই সুস্থ্য, সুন্দর ও ভালো থাকুন। নিজের প্রতি যত্নবান হউন এবং সাবধানে থাকুন। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।


এ জাতীয় আরো খবর.......
Design & Developed BY FlameDev