সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১১:৩৭ পূর্বাহ্ন

আর ৬৪ (অ্যালবুমিনুরিয়া ও কিডনি ড্রপ)

আরোগ্য হোমিও হল / ২৯ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশ কালঃ শুক্রবার, ১২ এপ্রিল, ২০২৪, ২:২৫ অপরাহ্ন
আর ৬৪ (অ্যালবুমিনুরিয়া ও কিডনি ড্রপ)

Dr. Reckeweg R 64/  আর ৬৪ (অ্যালবুমিনুরিয়া ও কিডনি ড্রপ)
আর ৬৪ (অ্যালবুমিনুরিয়া ও কিডনি ড্রপ)
R 64 (Albuminuria & Kidney Drops)
আরোগ্য হোমিও হল এ সবাইকে স্বাগতম। আশা করছি, সবাই ভালো আছেন। আজ আমরা এখানে আলোচনা করবো “  (অ্যালবুমিনুরিয়া ও কিডনি ড্রপস)” কম্বিনেশন হোমিওপ্যাথি ঔষধ নিয়ে আজকে জনবো, এটা সবার জানা জরুরী! তো আর কথা নয় – সরাসরি মূল আলোচনায়।
প্রস্তুত প্রণালী : Dr. Reckeweg R 64/  জার্মান কম্বিনেশন হোমিওপ্যাথি ঔষধ।
ব্যবহার  :  আর ৬৪ ড্রপসটি ক্লিনিকাল ইঙ্গিত : অ্যালবুমিনুরিয়া, প্রোটিনুরিয়া, নেফ্রোসিস, ক্রনিক নেফ্রাইটিস, নেফ্রোস্ক্লেরোসিস।
আর ৬৪ ড্রপসটির উপাদানগুলির মিশ্রণের বৈশিষ্ট্য : আর ৬৪ ড্রপসটি প্রোটিনুরিয়ার মূল কারণকে লক্ষ্য করে, কিডনির প্রদাহ থেকে মুক্তি দেয় এবং সুস্থ কিডনির কার্যকারিতা প্রচার করে। আপনি ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, অথবা গর্ভাবস্থা-সম্পর্কিত কিডনির সমস্যাগুলির সাথে মোকাবিলা করে। এটি সর্বোত্তম কিডনি স্বাস্থ্য বজায় রাখে।
আর ৬৪ এর মূল সুবিধা এবং উপাদান :  আর ৬৪ হলো একটি পেটেন্ট হোমিওপ্যাথিক ঔষধ যা ইউরোজেনিটাল ট্র্যাক্টের মধ্যে প্রদাহের শেষ পর্যায়ে পাওয়া লক্ষণগুলির সমাধান করে। এতে হেলোনিয়াস ডিওইকা, ক্যালিয়াম আর্সেনিকোসাম ইত্যাদির মতো ঔষধ রয়েছে যা অ্যালবুমিনুরিয়া (প্রস্রাবে অ্যালবুমিনের উপস্থিতি যা কিডনি রোগকে নির্দেশ করে), প্রোটিনুরিয়া (প্রস্রাবে অস্বাভাবিক পরিমাণে প্রোটিনের উপস্থিতি) এবং নেফ্রোসিস (কিডনির রোগ শোথ এবং ক্ষতি দ্বারা চিহ্নিত করা) এর উপর কাজ করে। রক্তরস থেকে প্রস্রাবে প্রোটিন)। এটি দীর্ঘস্থায়ী নেফ্রাইটিস (কিডনির প্রদাহ) ও নেফ্রোস্ক্লেরোসিস (কিডনির শক্ত হয়ে যাওয়া) জন্য এটি নির্দেশিত।
আর ৬৪ এর অ্যালবুমিনুরিয়া লক্ষণ :
(১) ফেনাযুক্ত অথবা বুদবুদ প্রস্রাব।
(২) আপনার হাত, পায়ে, পেটে ও মুখে ফোলাভাব (edema)|
প্রায়ই প্রস্রাব লাগে।
(৩) নিঃশ্বাস নিতে ও ফেলতে দুর্বলতা।
(৪) ক্লান্তি।
(৫) ক্ষুধামান্দ্য.
(৬) পেট খারাপ ও বমি বমি ভাব, বমি।
(৭) রাতে পেশীতে ক্র্যাম্প।
অ্যালবুমিনুরিয়া ও কিডনির কার্যকারিতার উপর প্রভাব বোঝার উপায় : অ্যালবুমিনুরিয়া হলো একটি মেডিক্যাল অবস্থা যা প্রস্রাবে অত্যধিক প্রোটিন অ্যালবুমিনের উপস্থিতি থাকে, যা প্রায়ই  প্র¯্রাবে একটি ভারী সাদা ফেনা দ্বারা লক্ষ্য করা যায়। অ্যালবুমিন রক্তনালী থেকে আশেপাশের টিস্যুতে পানি প্রবেশ করা প্রতিরোধ করে তরল ভারসাম্য বজায় রাখতে গুরুত্বপূর্ণ রাখে। যখন আপনার প্রস্রাবে অ্যালবুমিন পাওয়া যায়, তখন এটি সাধারণত কিডনির কার্যকারিতার সাথে একটি অন্তর্নিহিত সমস্যা নির্দেশ করে। প্রায়শই উচ্চ রক্তে শর্করার মাত্রা (হাইপারগ্লাইসেমিয়া), বিশেষ করে ডায়াবেটিক রোগীদের দেখা যায়। এই অবস্থা হলে কিডনি ক্ষতির চিহ্নিতকারী হিসাবে কাজ করে।
সাধারণত ডায়াবেটিসে আক্রান্ত প্রতি তিনজনের মধ্যে একজন এই অবস্থার সম্মুখীন হয়। অধিকন্তু, এটি প্রতি সাতজনের মধ্যে একজনের মধ্যে উচ্চ রক্তচাপ আছে যাদের ডায়াবেটিস নেই, আবার ৬০ বছরের বেশি বয়সী ছয়জনের মধ্যে একজনের মধ্যে এটি পর্যবেক্ষণ করা হয়েছে। বেশ কয়েকটি কারণ অ্যালবুমিনুরিয়ার বিকাশের দিকে নিয়ে যেতে পারে, যার মধ্যে কিডনির ক্ষতি, অতিরিক্ত লবণ খাওয়া, টাইপ ১ ডায়াবেটিস, উচ্চ রক্তচাপ, এবং কনজেস্টিভ হার্ট ফেইলিউর ইত্যাদি।
আর ৬৪ ড্রপসটির মুল উপদান :
(১) ক্যালিয়াম আর্সেনিকোসাম D4 (Kalium Arsenicosum D4)।
(২) প্লাম্বাম মেটালিকাম D12 (Plumbum Metallic. D12)।
(৩) ফসফরাস D6 (Phosphorus D6)।
(৪) হেলোনিয়াস ডিওইকা D3 (Helonias Dioica D3)।
আর ৬৪ ড্রপসটিরএ পৃথক উপাদানের কর্মের মোড :
আর ৬৪ ড্রপসটির মূল বৈশিষ্ট্যগুলি পুরুষ ও মহিলাদের প্রস্রাবের সংক্রমণের চিকিৎসার জন্য নিম্নলিখিত উপাদানগুলি থেকে উদ্ভূত হয়েছে :
(ক) ক্যালিয়াম আর্সেনিকোসাম D4 (Kalium Arsenicosum D4) : দীর্ঘস্থায়ী নেফ্রাইটিস ও এর সাথে সম্পর্কিত শোথের সমস্যা দুর করে, কিডনি অঞ্চলের সংবেদনশীলতাকে অনুকূল করে এবং হার্টের স্বাস্থ্যকে উন্নত করে।
(খ) প্লাম্বাম মেটালিকাম (Plumbum Metallic) :  এটি প্রোটিনুরিয়া হ্রাস করে এবং কিডনির আকার হ্রাসকে কাউন্টার করে, সামগ্রিক কিডনির স্বাস্থ্যকে উন্নত করতে সাহায্য করে। প্রস্রাবের পরিমাণ হ্রাস, কিডনির হাইপোট্রফি সহ প্রোটিনুরিয়া।
 (গ) ফসফরাস (Phosphorus ) : দুর্বলতা, প্যারেনকাইমাল অবক্ষয়, প্রস্রাবের বিশ্লেষণ প্রোটিন এবং রক্ত এবং নলাকার কাস্ট দেখায়। দীর্ঘস্থায়ী নেফ্রাইটিসের বিরুদ্ধে শক্তিশালী করে। একটি কিডনি প্রতিকার হিসাবে প্রায় নির্দিষ্ট।
হেলোনিয়াস ডিওইকা (Helonias Dioica) :  এটি পিঠের ব্যথা উপশম করে ও কিডনির কার্যকারিতাকে সমর্থন করে, বিশেষ করে গর্ভাবস্থা-সম্পর্কিত অ্যালবুমিনুরিয়াতে অত্যান্ত উপকারী।
চিকিৎসকের মন্তব্য :
(ক) তীব্র এবং দীর্ঘস্থায়ী নেফ্রাইটিস : আর ১ এর সাথে আর ৬ তুলনা করুন।
(খ)  রিল্যাপসিং কিডনির অভিযোগ আরো ভাল ফল দেয় যদি আর ৬৪, আর ১ এর সাথে পর্যায়ক্রমে ব্যবহার করা হয়।
(গ) সিস্টো-পাইলাইটিসে: আর ১ এর সাথে আর ১৮ এর তুলনা করুন।
(ঘ)  কিডনি-পাথর মধ্যে: আর ২৭ তুলনা করুন এবং প্রয়োজন হলে আর ১।

আরও পড়ুন –  র‌্যাক্স নং- ১৮ (ডান কিডনী পাথর)

আর ৬৪ ঔষধ সেবন বিধি : প্রাপ্ত বয়স্করা জন্য ১৫ থেকে ২০ ফোঁটা, শিশুরা ৭ থেকে ১০ ফোঁটা ঔষধ ১/৪ কাপ পানিতে মিশিয়ে দিনে ৩ বার অথবা রেজিষ্টার্ড হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসকের পরামর্শে সেবন করতে হবে।
চিকিৎসকের কিছু পরারর্শ : ওষুধ খাওয়ার সময় মুখের কোনো তীব্র গন্ধ যেমন কফি, পেঁয়াজ, শিং, পুদিনা, কর্পূর, রসুন ইত্যাদি এড়িয়ে চলুন। খাবার/পানীয়/অন্য কোনো ওষুধ এবং অ্যালোপ্যাথিক ওষুধের মধ্যে অন্তত আধা ঘণ্টার ব্যবধান রাখুন।
সতর্কতা : গর্ভবতী মা অথবা দুগ্ধদানকারী মারা ঔষধ সেবনের পূর্বে রেজিষ্টার্ড হোমিওপ্যাথি চিকিৎসকের পরামর্শে ঔষধ সেবন করা উত্তম।
শর্তাবলী : কম্বেনেশন হোমিওপ্যাথি ঔষধগুলি সাধারণত লক্ষণে উপর ভিভি করে ব্যবহার করা হয়। মনে রাখবেন হোমিওপ্যাথিক সদৃশ্য বিধান একটি চিকিৎসা ব্যবস্থা, বেশি লক্ষণে সঙ্গে মিলিলে তবেই ব্যবহার যোগ্য। তা না হলে অবস্থার উপর নির্ভর করে ফলাফল পরিবর্তিত হতে পারে।
পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া : হোমিওপ্যাথি সর্বোত্তম চিকিৎসা প্রদান করে কারণ এটি নিরাপদ এবং পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া মুক্ত।
ঔষধ সংরক্ষণ : সুস্ক ও শীতল স্থানে সুগন্ধ-দুগন্ধ, আলো-বাতাস থেকে দুরে, শিশুদের নাগালের বাহিরে রাখুন।
ঔষধের গুণগতমাণ : এটি একটি প্রাকৃতিক পণ্য, এটি কখনও কখনও সামান্য বৃষ্টিপাত অথবা মেঘলা হতে পারে, কিন্তু এটি পণ্যের গুণমান এবং এর কার্যকারিতা প্রভাবিত করে না। যদি এটি ঘটে তবে পণ্যটি ব্যবহার করার আগে ভালভাবে ঝাঁকি নিন। একবার আপনি সীলটি ভেঙে ফেললে, ওষুধগুলি দ্রুত ব্যবহার করা উচিত।
আরোগ্য হোমিও হল এডমিন : আজকের আলোচনা এখানেই শেষ করলাম। আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছেন। নতুন কোনো স্বাস্থ্য টিপস নিয়ে হাজির হবো অন্য দিন। এই ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তথ্যগুলো কেবল স্বাস্থ্য সেবা সম্বন্ধে জ্ঞান আহরণের জন্য। অনুগ্রহ করে রেজিষ্টার্ড হোমিওপ্যাথিক পরামর্শ নিয়ে ওষুধ সেবন করুন। চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ সেবনে আপনার শারীরিক বা মানসিক ক্ষতি হতে পারে। প্রয়োজনে, আমাদের সহযোগিতা নিন।  এই ওয়েব সাইটটি কে কোন জেলা বা দেশ থেকে দেখছেন “লাইক – কমেন্ট” করে জানিয়ে দিন। যদি ভালো লাগে তবে “শেয়ার” করে আপনার বন্ধুদের জানিয়ে দিন।  সবাই সুস্থ্য, সুন্দর ও ভালো থাকুন। নিজের প্রতি যত্নবান হউন এবং সাবধানে থাকুন।  আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।

 

 

 

 

 

 


এ জাতীয় আরো খবর.......
Design & Developed BY FlameDev