সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১২:৩৯ অপরাহ্ন

আর ৫৮ (হাইড্রপস পেশী দুর্বলতা)

আরোগ্য হোমিও হল / ২৯ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশ কালঃ বুধবার, ১৭ এপ্রিল, ২০২৪, ৫:২৯ অপরাহ্ন
আর ৫৮ (হাইড্রপস পেশী দুর্বলতা)

Dr. Reckeweg R 58/  আর ৫৮ (হাইড্রপস পেশী দুর্বলতা)
R  58 (Hydrops Muscular Weakness)
আরোগ্য হোমিও হল এ সবাইকে স্বাগতম। আশা করছি, সবাই ভালো আছেন। আজ আমরা এখানে আলোচনা করবো “ আর ৫৮ (হাইড্রপস পেশী দুর্বলতা)” কম্বিনেশন হোমিওপ্যাথি ঔষধ নিয়ে আজকে জনবো, এটা সবার জানা জরুরী! তো আর কথা নয় – সরাসরি মূল আলোচনায়।
প্রস্তুত প্রণালী : Dr. Reckeweg R 58/  জার্মান কম্বিনেশন হোমিওপ্যাথি ঔষধ।
ব্যবহার :  আর ৫৮ ড্রপসটির ইঙ্গিত :  হার্টের পেশী দুর্বলতা ও হাইড্রোপসি বা পায়ে শোথের উপস্থিতি। হৃদপিন্ডের পেশী দুর্বলতার কারণে ঘন ঘন পেটে হাইড্রপসি। রেনাল এডিমাতেও ব্যবহার করা হয়।
আর ৫৮ ড্রপসটি উপকারিতা : পা ও পেটের হাইড্রোপসি ও ফোলা। এরমধ্যে মূল উপাদান রয়েছে যেমন – অ্যাডোনিস ভার্নালিস, কনভালারিয়া ইত্যাদি যা হৃৎপিণ্ডের পেশী দুর্বলতা, শরীরের গহ্বর অথবা টিস্যুতে অতিরিক্ত তরল জমে থাকা (এডিমা), হাইড্রোপসি (সিভিয়ার ইন্টারস্টিটাসিয়ামে তরল অস্বাভাবিক জমে থাকা) হৃৎপিণ্ডের পেশী দুর্বলতার কারণে পেটে ব্যথা। এছাড়াও রেনাল শোথের জন্য নির্দেশিত।
আর ৫৮ ড্রপসটি শোথের চিকিৎসায় রেনালের ভূমিকা :  আর ৫৮ ড্রপসটি কিডনি ও শরীরের তরল ফিল্টার করে, আপনার রক্ত থেকে অতিরিক্ত বর্জ্য পদার্থ অপসারণ করতে সাহায্য করে। যদি আপনার কিডনি সঠিকভাবে কাজ না করলে, তরল মানবদেহে শরীরে আটকে যেতে পারে। কিছু বর্জ্য পণ্য, যেমন – সোডিয়াম, আপনার নরম টিস্যুতে তরল আটকে গিয়ে আপনার ত্বকের নীচে ফুলে যেতে পারে। এটি রেনাল ফাংশনকে উদ্দীপিত করে ও রেনাল এডিমাতেও কার্যকর। শোথ ও শোথের লক্ষণ এবং উপসর্গগুলির চিকিৎসার অন্তর্নিহিত কারণগুলি জড়িত। শরীরের আপনার অঙ্গ-প্রত্যঙ্গের অন্তর্র্বতী স্থানগুলিতে তরল জমা হতে পারে। যখন এই তরলটি অপসারণ করা হয় না তখন এটি আপনার সমস্ত শরীরে জল ধরে রাখে শোথ হতে পারে (সাধারণকৃত শোথ) বা শরীরের নির্দিষ্ট অংশে (স্থানীয় শোথ)। এডমা প্রাথমিকভাবে অ্যালার্জির প্রতিক্রিয়া অথবা রক্তশূন্যতার কারণে শুরু হয়। বয়স্ক ব্যক্তিদের মধ্যে শোথ হওয়ার প্রবণতা হয় বসে থাকার কারণে বা অন্তর্নিহিত কিডনি অথবা হার্টের অবস্থার কারণে। তবে ইডিওপ্যাথিক শোথের মতো সাধারণত পাওয়া শোথের কোনো নির্দিষ্ট কারণ নেই।

আরও পড়ুন –  অ্যাডাল-৪৩ (হার্টের দুর্বলতা ড্রপস)

শোথের চিকিৎসার জন্য সহজ ঘরোয়া প্রতিকার : নিয়মিত হাঁটা, স্থূলতা (অতিরিক্ত ওজন হওয়া) এড়ানো এবং বিশ্রাম নেওয়ার সময় মলের উপর পা রাখা। প্ল্যান্টার ভেইন থ্রম্বোসিসের কারণে পায়ের ব্যথা ও ফোলা হতে পারে। এই রোগীদের মধ্যে সম্পূর্ণ অথবা আংশিক পুনঃক্যানালাইজেশন ঘটে ৬ মাসের মধ্যে রক্ত প্রবাহের একটি শিরাস্থ অংশে যা আগে বন্ধ ছিল। ডায়াবেটিস মেলিটাসের সাথে সম্পর্কিত নিউরোপ্যাথিতে, রক্ত সঞ্চালন প্রভাবিত হয় এবং নীচের অংশে তরল তৈরি করে শোথ ডায়াবেটিসের একটি পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া।
আর ৫৮ ড্রপসটি মুল উপাদান : 
(১) অ্যাডোনিস্-ভার্ণালিস D2 (Adonis Vernalis D2)।
(২) ক্র্যাটেগাস D1 (Crataegus D1)।
(৩) কনভালারিয়া মাজালিস D2 (Convallaria Maj D2)।
(৪) ডিজিটালিস D3 (Digitalis D3)।
(৫) সিলা D2 (Scilla D2)।
(৬) হেলেবোরাস D2 (Helleborus D4)।

আরও পড়ুন –  এইচ আর – ৯২ (হার্টে রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি করে )

আর ৫৮ ড্রপসটিতে উপাদানের কর্মের মোড :
(ক) অ্যাডোনিস ভার্নালিস (Adonis Vernalis) : এটিতে গ্লাইকোসিড প্রতিক্রিয়ার মতো ডিজিটালিস (উরমরঃধষরং) এর মতো উপদান থাকায় অ্যারিথমিয়া (অনিয়মিত হৃদস্পন্দন) এবং টাকাইকার্ডিয়া (অস্বাভাবিক দ্রুত হৃদস্পন্দন) এ মূত্রবর্ধক হিসাবে কাজ করে (প্রস্রাব বৃদ্ধির কারণ)।
(খ) ক্র্যাটেগাস (Crataegus) : এটি করোনারি রক্তনালীকে বড় করতে সাহায্য করে।
(গ) কনভালারিয়া মাজালিস (Convallaria Maj) : এটি হৃৎপিণ্ডের টনিক হিসেবে কাজ করে এবং হার্টের অপ্রতুলতায় কার্যকর।
(ঘ) ডিজিটালিস (Digitalis) : হৃৎপিণ্ডের পেশী শক্তি বৃদ্ধি করতে সাহায্য করে।

আরও পড়ুন –  এইচ আর – ৪৪ (হৃৎপিণ্ডের স্পন্দন নিয়ন্ত্রণে কার্যকর)

(ঙ) সিলা (Scilla) : এটি মূত্রবর্ধক কর্ম আছে, তবে এটি হৃৎপিণ্ডের পেশী শক্তি এবং রক্ত সঞ্চালন বৃদ্ধি করে। রেনাল ফাংশনে ব্যাঘাতের কারণে সৃষ্টি শোথের চিকিৎসা করে। এটি তরল শোষণ করে কমাতে সাহায্য করে।
(চ) হেলেবোরাস Helleborus) : এটি মূত্রবর্ধক উপাদানগুলিকে শক্তিশালী করে যাতে অতিরিক্ত জল জমে যায়।
আর ৫৮ ঔষধ সেবন বিধি : প্রাপ্ত বয়স্করা জন্য ১৫ থেকে ২০ ফোঁটা, শিশুরা ৭ থেকে ১০ ফোঁটা ঔষধ ১/৪ কাপ পানিতে মিশিয়ে দিনে ৩ বার অথবা রেজিষ্টার্ড হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসকের পরামর্শে সেবন করতে হবে।
চিকিৎসকের কিছু পরারর্শ : ওষুধ খাওয়ার সময় মুখের কোনো তীব্র গন্ধ যেমন কফি, পেঁয়াজ, শিং, পুদিনা, কর্পূর, রসুন ইত্যাদি এড়িয়ে চলুন। খাবার/পানীয়/অন্য কোনো ওষুধ এবং অ্যালোপ্যাথিক ওষুধের মধ্যে অন্তত আধা ঘণ্টার ব্যবধান রাখুন।

আরও পড়ুন –  কেন্ট ০৪ (ডায়াবেটিস রোগে কার্যকর)

সতর্কতা : গর্ভবতী মা অথবা দুগ্ধদানকারী মারা ঔষধ সেবনের পূর্বে রেজিষ্টার্ড হোমিওপ্যাথি চিকিৎসকের পরামর্শে ঔষধ সেবন করা উত্তম।
শর্তাবলী : কম্বেনেশন হোমিওপ্যাথি ঔষধগুলি সাধারণত লক্ষণে উপর ভিভি করে ব্যবহার করা হয়। মনে রাখবেন হোমিওপ্যাথিক সদৃশ্য বিধান একটি চিকিৎসা ব্যবস্থা, বেশি লক্ষণে সঙ্গে মিলিলে তবেই ব্যবহার যোগ্য। তা না হলে অবস্থার উপর নির্ভর করে ফলাফল পরিবর্তিত হতে পারে।
পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া : হোমিওপ্যাথি সর্বোত্তম চিকিৎসা প্রদান করে কারণ এটি নিরাপদ এবং পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া মুক্ত।
ঔষধ সংরক্ষণ : সুস্ক ও শীতল স্থানে সুগন্ধ-দুগন্ধ, আলো-বাতাস থেকে দুরে, শিশুদের নাগালের বাহিরে রাখুন।
ঔষধের গুণগতমাণ : এটি একটি প্রাকৃতিক পণ্য, এটি কখনও কখনও সামান্য বৃষ্টিপাত অথবা মেঘলা হতে পারে, কিন্তু এটি পণ্যের গুণমান এবং এর কার্যকারিতা প্রভাবিত করে না। যদি এটি ঘটে তবে পণ্যটি ব্যবহার করার আগে ভালভাবে ঝাঁকি নিন। একবার আপনি সীলটি ভেঙে ফেললে, ওষুধগুলি দ্রুত ব্যবহার করা উচিত।
আরোগ্য হোমিও হল এডমিন : আজকের আলোচনা এখানেই শেষ করলাম। আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছেন। নতুন কোনো স্বাস্থ্য টিপস নিয়ে হাজির হবো অন্য দিন। এই ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তথ্যগুলো কেবল স্বাস্থ্য সেবা সম্বন্ধে জ্ঞান আহরণের জন্য। অনুগ্রহ করে রেজিষ্টার্ড হোমিওপ্যাথিক পরামর্শ নিয়ে ওষুধ সেবন করুন। চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ সেবনে আপনার শারীরিক বা মানসিক ক্ষতি হতে পারে। প্রয়োজনে, আমাদের সহযোগিতা নিন।  এই ওয়েব সাইটটি কে কোন জেলা বা দেশ থেকে দেখছেন “লাইক – কমেন্ট” করে জানিয়ে দিন। যদি ভালো লাগে তবে “শেয়ার” করে আপনার বন্ধুদের জানিয়ে দিন।  সবাই সুস্থ্য, সুন্দর ও ভালো থাকুন। নিজের প্রতি যত্নবান হউন এবং সাবধানে থাকুন।  আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 

 


এ জাতীয় আরো খবর.......
Design & Developed BY FlameDev