সোমবার, ২৭ মে ২০২৪, ১২:১১ অপরাহ্ন

আর ২৮ (অনিয়মিত পিরিয়ড)

আরোগ্য হোমিও হল / ২৯ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশ কালঃ শনিবার, ১১ মে, ২০২৪, ১১:৪৮ অপরাহ্ন
আর - ২৮ (অনিয়মিত পিরিয়ড)

Dr.Reckeweg R 28 (অনিয়মিত পিরিয়ড)

আর – ২৮ (অনিয়মিত পিরিয়ড)

R – 28 (irregular period)

প্রস্তত প্রণালী : Dr.Reckeweg R 28/ ড্রপসটি জার্মান কম্বিনেশন হোমিওপ্যাথি ঔষধ।

আরোগ্য হোমিও হল এ সবাইকে স্বাগতম। আশা করছি, সবাই ভালো আছেন। আজ আমরা এখানে আলোচনা করবো “ আর – ২৯ (অনিয়মিত পিরিয়ড)” কম্বিনেশন হোমিওপ্যাথি ঔষধ নিয়ে আজকে জনবো, এটা সবার জানা জরুরী! তো আর কথা নয় – সরাসরি মূল আলোচনায়।

ব্যবহার : আর – ২৮ ড্রপসটি ডিসমেনোরিয়া, অ্যামেনোরিয়া, ডোরাকাটা পেশী তন্তুগুলির উপর কাজ করে, রক্তক্ষরণের কারণে ক্লান্তি বোধ, তাপের ফ্লাশের পরে ঘাম, পিঠের ছোট অংশে নিস্তেজ ব্যথা ইত্যাদিতে ব্যবহার করা হয়।

আর – ২৮ ডিসমেনোরিয়া ড্রপসটি উপকারিতা : আর -২৮ ড্রপসটি হল মহিলাদের অনিয়মিত পিরিয়ডের জন্য একটি জার্মান হোমিওপ্যাথিক পেটেন্ট ঔষধ। এতে অ্যাসিডাম সালফিউরিক (Acidum Sulfuric), অ্যাসকুলাস (Aesculus) ইত্যাদির মতো গুরুত্বপূর্ণ ঔষধ রয়েছে যা ডিসমেনোরিয়া (বেদনাদায়ক মাসিক) ও অ্যামেনোরিয়া (মাসিক স্রাবের অস্বাভাবিক অনুপস্থিতি) এর উপর কাজ করে। আবার এটি স্ট্রাইপড পেশী তন্তুর উপরও কাজ করে। এটি রক্তের ক্ষয়, ঘাম (ঘাম) দ্বারা অনুসৃত তাপের ফ্লাশের কারণে সৃষ্ট ক্লান্তির জন্যও এটি নির্দেশিত। এটি পিঠ জুড়ে নিস্তেজ ব্যথারও চিকিৎসায় কার্যকর।

আর – ২৮ অনিয়মিত পিরিয়ড :
ডিসমেনোরিয়া ও অ্যামেনোরিয়া অনিয়মিত পিরিয়ডের সবচেয়ে সাধারণ কারণ। ডিসমেনোরিয়া বলতে মাসিকের সময় বেদনাদায়ক ক্র্যাম্পে বোঝানো হয়েছে এবং এটি সবচেয়ে সাধারণ মাসিক ব্যাধি। এটি একটি নিস্তেজ এবং স্পন্দিত ব্যথাকে বোঝায় যা সাধারণত তলপেটে থাকে উরু এবং পিঠের নীচের দিকে প্রচালিত করে। ব্যথা শুরু হয় যখন মাসিক শুরু হয় এবং এটি সাধারণত তিন দিন স্থায়ী হয়। ডিসমেনোরিয়ার স্ট্রেস, ব্যায়ামের অভাব, বংশগত, পেলভিক প্রদাহজনিত রোগ, প্রদাহজনক অন্ত্রের রোগ ইত্যাদির কারণে হয়ে থাকে। এর লক্ষণগুলির হল তলপেটে ক্র্যাম্পিং ব্যথা যা পিঠের নিচের দিকে ছড়িয়ে পড়ে, বমি, বমি বমি ভাব, বিরক্তি, ডায়রিয়া, মাথা ঘোরা এবং ঘাম ইত্যাদি সমস্যা হয়।

আও পড়ুন – অনিয়মিত ঋতুস্রাবে হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসা

অ্যামেনোরিয়া সাধারণত মাসিক রক্তপাতের অনুপস্থিতিকে বোঝায়। অ্যামেনোরিয়া প্রাথমিক অথবা গৌণ হতে পারে এবং হরমোনের ভারসাম্যহীনতা এবং শরীরের অতিরিক্ত পুরুষ হরমোনগুলি অনিয়মিত মাসিকের সাধারণ কারণগুলির দ্বারা চিহ্নিত করা হয়। প্রাথমিক অ্যামেনোরিয়া বলতে রক্তপাতের অনুপস্থিতি এবং ১৪ থেকে ১৬ বছর বয়সের মধ্যে মেয়েদের পিউবিক চুল এবং স্তনের বিকাশের মতো গৌণ যৌন বৈশিষ্ট্যের বিকাশকে বোঝানো হয়। সেকেন্ডারি অ্যামেনোরিয়া বলতে ঋতুস্রাব হওয়া মহিলাদের মাসিকের রক্তপাতের অনুপস্থিতিকে বোঝানো হয়, কিন্তু পরে গর্ভধারণের অনুপস্থিতিতে ৩ অথবা তার বেশি মাস বন্ধ হয়ে যায়। এর লক্ষণগুলির মধ্যে রয়েছে মাথাব্যথা, চুল পড়া, দৃষ্টিশক্তির পরিবর্তন, পেলভিক ব্যথা, অতিরিক্ত চুল পড়া ইত্যাদি।

আর ২৮ ড্রপসটির মুল উপাদান :
(ক) অ্যাসিডাম সালফিউরিকাম D4 (Acidum Sulfuric D4)।
(খ) অ্যাসকুলাস D2 (Aesculus D2)।
(গ) ক্রোকাস D4 (Crocus D4)।
(ঘ) ফেরাম ফসফরিক D8 (Ferrum Phosphoric D8) ।
(ঙ) সিকেলি কর্নিউটাম D6 (Secale Cornut D6)।
(চ) হ্যামেলিস D6 (Hamamelis D6)।

আও পড়ুন – অনিয়মিত পিরিয়ডের ৯টি ঘরোয়া সমাধান

আর – ২৮ ড্রপসটির উপাদানের কর্মের মোড : আর – ২৮ ড্রপের মূল বৈশিষ্ট্যগুলি অনিয়মিত পিরিয়ডের বিভিন্ন কারণের চিকিৎসার জন্য নিম্নলিখিত উপাদানগুলি থেকে উদ্ভূত হয়েছে।

(১) অ্যাসিডাম সালফিউরিকাম (Acidum Sulfuric) : এটি যে কোনো ধরনের রক্তক্ষরণ, তাপ ফ্লাশের পরে ঘাম, এবং ক্লান্তির চিকিৎসা করে।

(২) অ্যাসকুলাস (Aesculus) : এটি শিরাস্থ স্ট্যাসিস (শিরায় রক্ত জমাট বাঁধা) ও সারা শরীরে স্পন্দনের চিকিৎসা করে।

(৩) ক্রোকাস (Crocus) : অনিয়মিত পিরিয়ডের বিভিন্ন কারণের চিকিৎসা করে যেমন – মাসিকের রক্ত কালো অথবা কালো, জমাট বাঁধা রক্ত ইত্যাদি চিকিৎসা করে।

(৪) ফেরাম ফসফরিক (Ferrum Phosphoric) : এটি রক্ত সঞ্চালনে কাজ করে এবং শিরাগুলির প্রসারণে দুর্দান্ত কাজ করে।

(৫) সিকেলি কর্নিউটাম (Secale Cornut) : স্ট্রাইপড পেশী তন্তু, কষ্ট, কনজেশন ও জরায়ু প্রোল্যাপসাসের উপর কাজ করে। বিশেষ করে এটি যখন জরায়ু শ্রোণীতে তার স্বাভাবিক অবস্থান থেকে যোনিতে আরো নিচে নেমে আসে। এটি জরায়ুর সংকোচন ইত্যাদির উপরও প্রভাব রয়েছে।

আও পড়ুন – এন – ১০ (অনিয়মিত মাসিকের ড্রপস)

(৬)  হ্যামেলিস (Hamamelis) : এটি রক্তক্ষরণ (একটি ফেটে যাওয়া রক্তনালী থেকে রক্ত বের হওয়া) ও মাথাব্যথার চিকিৎসা করে। এটি রক্তের ক্ষয়জনিত ক্লান্তি বা দুর্বলতার চিকিৎসাও করে।

আর – ২৮ ড্রপসটি সেবন বিধি : তীব্র অনুসারে, প্রতিদিন ৪ থেকে ৬ বার খাবারের আগে ১০ থেকে ১৫ ফোঁটা ঔষধ একঢোক পরিমাণ মত পানিতে মিশিয়ে সেবন করুণ। কিছু উন্নতি হলে প্রতিদিন সাকাল-দুপুর-রাতে (৩ বার) সেবন করুণ। সম্পূর্ণ পুনরুদ্ধারের পরেও, ওষুধটি দীর্ঘ সময়ের জন্য সেবন করতে হবে। পরবর্তী রক্ত¯্রাবাব শুরু হওয়ার প্রায় ৮ দিন আগে দিনে দুবার (সকাল ও রাতে) ৫-১০ ফোঁটা ঔষধ পানি সঙ্গে সেবন করতে হবে।

চিকিৎসকের কিছু পরারর্শ : ওষুধ খাওয়ার সময় মুখের কোনো তীব্র গন্ধ যেমন কফি, পেঁয়াজ, শিং, পুদিনা, কর্পূর, রসুন ইত্যাদি এড়িয়ে চলুন। খাবার/পানীয়/অন্য কোনো ওষুধ এবং অ্যালোপ্যাথিক ওষুধের মধ্যে অন্তত আধা ঘণ্টার ব্যবধান রাখুন।

সতর্কতা : গর্ভবতী মা অথবা দুগ্ধদানকারী মারা ঔষধ সেবনের পূর্বে রেজিষ্টার্ড হোমিওপ্যাথি চিকিৎসকের পরামর্শে ঔষধ সেবন করা উত্তম।

আও পড়ুন –  মাসিক দেরিতে হওয়ার ৬ কারণ

শর্তাবলী : কম্বেনেশন হোমিওপ্যাথি ঔষধগুলি সাধারণত লক্ষণে উপর ভিভি করে ব্যবহার করা হয়। মনে রাখবেন হোমিওপ্যাথিক সদৃশ্য বিধান একটি চিকিৎসা ব্যবস্থা, বেশি লক্ষণে সঙ্গে মিলিলে তবেই ব্যবহার যোগ্য। তা না হলে অবস্থার উপর নির্ভর করে ফলাফল পরিবর্তিত হতে পারে।

পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া : হোমিওপ্যাথি সর্বোত্তম চিকিৎসা প্রদান করে কারণ এটি নিরাপদ এবং পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া মুক্ত।

ঔষধ সংরক্ষণ : সুস্ক ও শীতল স্থানে সুগন্ধ-দুগন্ধ, আলো-বাতাস থেকে দুরে, শিশুদের নাগালের বাহিরে রাখুন।

ঔষধের গুণগতমাণ : এটি একটি প্রাকৃতিক পণ্য, এটি কখনও কখনও সামান্য বৃষ্টিপাত অথবা মেঘলা হতে পারে, কিন্তু এটি পণ্যের গুণমান এবং এর কার্যকারিতা প্রভাবিত করে না। যদি এটি ঘটে তবে পণ্যটি ব্যবহার করার আগে ভালভাবে ঝাঁকি নিন। একবার আপনি সীলটি ভেঙে ফেললে, ওষুধগুলি দ্রুত ব্যবহার করা উচিত।

আরোগ্য হোমিও হল এডমিন : আজকের আলোচনা এখানেই শেষ করলাম। আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছেন। নতুন কোনো স্বাস্থ্য টিপস নিয়ে হাজির হবো অন্য দিন। এই ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তথ্যগুলো কেবল স্বাস্থ্য সেবা সম্বন্ধে জ্ঞান আহরণের জন্য। অনুগ্রহ করে রেজিষ্টার্ড হোমিওপ্যাথিক পরামর্শ নিয়ে ওষুধ সেবন করুন। চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ সেবনে আপনার শারীরিক বা মানসিক ক্ষতি হতে পারে। প্রয়োজনে, আমাদের সহযোগিতা নিন। এই ওয়েব সাইটটি কে কোন জেলা বা দেশ থেকে দেখছেন “লাইক – কমেন্ট” করে জানিয়ে দিন। যদি ভালো লাগে তবে “শেয়ার” করে আপনার বন্ধুদের জানিয়ে দিন। সবাই সুস্থ্য, সুন্দর ও ভালো থাকুন। নিজের প্রতি যত্নবান হউন এবং সাবধানে থাকুন। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।


এ জাতীয় আরো খবর.......
Design & Developed BY FlameDev