সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১২:২২ অপরাহ্ন

বায়ো-কম্বিনেশন ২৬ (গর্ভাবস্থায় ব্যথা)

আরোগ্য হোমিও হল / ৯৩ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশ কালঃ মঙ্গলবার, ২৩ জানুয়ারী, ২০২৪, ৬:১৫ অপরাহ্ন
বায়ো-কম্বিনেশন ২৬ (গর্ভাবস্থায় ব্যথা)

বায়ো-কম্বিনেশন ২৬ (গর্ভাবস্থায় ব্যথা)

Bio-Combination 26 (Pregnancy Pain)।

ক্যাটাগরি : বায়ো কম্বিনেশন হোমিওপ্যাথি বায়োকেমিক ট্যাবলেট।

আরোগ্য হোমিও হল এ সবাইকে স্বাগতম। আশা করছি, সবাই ভালো আছেন। আজ আমরা এখানে আলোচনা করবো বায়ো-কম্বিনেশন ২৬ (গর্ভাবস্থায় ব্যথা) ঔষধে সহজ প্রসবের জন্য প্রসব ব্যথা উপশম করে, গর্ভাবস্থায় ব্যথা নিয়ে আজকে জনবো, এটা সবার জানা জরুরী! তো আর কথা নয় – সরাসরি মূল আলোচনায়।

কার্যকারিতা : সহজ প্রসবের জন্য প্রসব ব্যথা উপশম করে, গর্ভাবস্থায় ব্যথা কমায়।

বায়ো কম্বিনেশন ২৬ ঔষধের ব্যবহার : বায়ো কম্বিনেশন ২৬ হোমিওপ্যাথি ঔষধ সাধারণত গর্ভাবস্থায় ব্যথা কমায়, সহজ প্রসবের জন্য প্রসব বেদনা থেকে মুক্তি দেয়। মায়ের স্বাস্থ্যের উন্নতি করে এবং সন্তানের বিকাশে সহায়তা করে। নতুন টিস্যু, রক্ত এবং হাড়ের বিকাশ নিয়ে কাজ করে। স্তন্যপান করানোর সময় নতুন রক্ত কণিকা সরবরাহ করে এবং ক্যালসিয়াম গঠনে সাহায্য করে।

বায়ো-কম্বিনেশন ২৬ ঔষধ সম্পর্কে তথ্য : বায়ো-কম্বিনেশন ২৬ হল একটি সুষম ফর্মুলেশন যা জরায়ু ও এর পেশীগুলির সুস্বাস্থ্যের জন্য প্রয়োজনীয় সেলুলার তরল গঠন বজায় রাখতে অত্যান্ত গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। এছাড়াও বায়ো-কম্বিনেশন ২৬ ঔষধ সাধারণত পেশী, স্নায়ু, মস্তিষ্ক, হাড়, দাঁত, রক্তকণিকাগুলির একটি উপাদান রয়েছে। সংকুচিত এবং স্প্যাসমোডিক সমস্ত ব্যথা বাহ্যিক অংশে প্রদাহ, ডিম্বাশয়, জরায়ু অঞ্চলে এবং প্রসব বেদনায় স্নায়বিক ব্যথার জন্য ব্যবহার করা হয়।

আরও পড়ুন – কেন্ট ০২ (শূলবেদনা রোগে কার্যকর)

বায়ো-কম্বিনেশন ২৬ ঔষধের মুল উপাদান :
(১) ক্যালকেরিয়া ফ্লুরিকা (Calcarea Fluorica)
(২) ক্যালকেরিয়া ফসফোরিকা (Calcarea phosphorica)
(৩) কেলি ফস (Kali Phosphoricum)
(৪) ম্যাগনেসিয়া ফসফোরিকা (Magnesia phosphorica)

বায়ো-কম্বিনেশন ২৬ ঔষধের উপকারিতা:
(ক) গর্ভাবস্থায় এটি প্রসব বেদনা উপশম করে এবং সহজে প্রসব করতে অত্যান্ত কার্যকরী।
(খ) মায়ের স্বাস্থ্যের উন্নতি করে ও সন্তানকে বিকাশে সাহায্য করে।
(গ) এটি নতুন টিস্যু, রক্ত এবং হাড়ের বিকাশে কার্যকরী।
(ঘ) যৌন উত্তেজনার সাথে স্তন্যপান করানোর সময় নতুন রক্তকণিকা সরবরাহ করে এবং ক্যালসিয়াম গঠনে সাহায্য করে।
(ঙ) নিম্ফোম্যানিয়া, জরায়ু অঞ্চলে ব্যথা, চাপবোধ ও দুর্বলতায় কার্যকর।
(চ) পেটের দেয়ালের লিম্ফ্যাটিক এবং সংযোগকারী টিস্যুগুলিকে ঢেকে রাখে ও শরীরের সংকোচনের ক্ষমতা সংরক্ষণে সাহায্য করে।

আরও পড়ুন – এন -০১ (ব্যথার ড্রাপ)

সেবন বিধি : ৪টি ট্যাবলেট প্রতি তিন ঘন্টা বা দিনে চারবার কুসুম কুসুম গরম পানির সঙ্গে সেবন করুণ। অথবা চিকিত্সকের নির্দেশ অনুসারে সেবন করুন

পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া : এই ঔষধগুলি নির্দিষ্ট মাত্রায় সেবনে কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই।

সংরক্ষণ : সুগন্ধ-দুগন্ধ, আলো-বাতাস থেকে দুরে ও শিশুদের নাগালের বাহিরে রাখুন।

সর্তবলী : বায়ো কম্বেনেশন হোমিওপ্যাথি বায়োকেমিক ঔষধগুলি সাধারণত লক্ষণে উপর ভিভি করে ব্যবহার করা হয়। মনে রাখবেন হোমিওপ্যাথিক সদৃশ্য বিধান একটি চিকিৎসা ব্যবস্থা, বেশি লক্ষণে সঙ্গে মিলিলে তবেই ব্যবহার যোগ্য। তা না হলে অবস্থার উপর নির্ভর করে ফলাফল পরিবর্তিত হতে পারে।

চিকিৎসকের কিছু পরামর্শ : ওষুধ খাওয়ার সময় মুখের কোনো তীব্র গন্ধ যেমন কফি, পেঁয়াজ, শিং, পুদিনা, কর্পূর, রসুন ইত্যাদি এড়িয়ে চলুন। খাবার/পানীয়/অন্য কোনো ওষুধ এবং অ্যালোপ্যাথিক ওষুধের মধ্যে অন্তত আধা ঘণ্টার ব্যবধান রাখুন।

আরোগ্য হোমিও হল এডমিন : আজকের আলোচনা এখানেই শেষ করলাম। আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছেন। নতুন কোনো স্বাস্থ্য টিপস নিয়ে হাজির হবো অন্য দিন।এই ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তথ্যগুলো কেবল স্বাস্থ্য সেবা সম্বন্ধে জ্ঞান আহরণের জন্য। অনুগ্রহ করে রেজিষ্টার্ড হোমিওপ্যাথিক পরামর্শ নিয়ে ওষুধ সেবন করুন। চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ সেবনে আপনার শারীরিক বা মানসিক ক্ষতি হতে পারে। প্রয়োজনে, আমাদের সহযোগিতা নিন। এই ওয়েব সাইটটি কে কোন জেলা বা দেশ থেকে দেখছেন “লাইক – কমেন্ট” করে জানিয়ে দিন। যদি ভালো লাগে তবে “শেয়ার” করে আপনার বন্ধুদের জানিয়ে দিন। সবাই সুস্থ্য, সুন্দর ও ভালো থাকুন। নিজের প্রতি যত্নবান হউন এবং সাবধানে থাকুন। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।


এ জাতীয় আরো খবর.......
Design & Developed BY FlameDev