শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ০২:৫৯ অপরাহ্ন

ক্যালিয়াম বাইক্রোম ৪X

আরোগ্য হোমিও হল / ২৫৫ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশ কালঃ বুধবার, ১৪ জুন, ২০২৩, ৫:৪৫ অপরাহ্ন

ক্যালিয়াম বাইক্রোম ৪X

Kali Bichromicum 4X

ক্যাটাগরি : উইলমার শোয়াবে ইন্ডিয়া ক্যালিয়াম বাইক্রোম ৪X।

প্রস্তত প্রণালী : ক্যালিয়াম বাইক্রোম ৪X ঔষধ হোমিওপ্যাথিক ফার্মাকোপিয়া অনুযায়ী প্রস্তুত।

ক্যালিয়াম বাইক্রোম ৪X ঔষধের ব্যবহার : ক্যালিয়াম বাইক্রোম সাধারণত শ্লেষ্মা ঝিল্লি সংক্রান্ত সমস্যায় ব্যবহার হয়ে থাকে। বিশেষ করে গলা, নাক, পাকস্থলী, যোনি এবং মূত্রনালী সংক্রান্ত সমস্যায় অত্যান্ত কার্যকরী।  দীর্ঘস্থায়ী সাইনোসাইটিস, দীর্ঘস্থায়ী টনসিলাইটিস, দীর্ঘস্থায়ী গলা ক্যাটারা,দীর্ঘস্থায়ী রাইনাইটিস, ব্রঙ্কিয়াল অ্যাজমা, পেরিওস্টাইটিসে কার্যকর।

ক্যালিয়াম বাইক্রোম ঔষধের সাধারণ লক্ষণ: শুষ্কতা, কোরিজা, নাক বন্ধ সহ, হিংস্র হাঁচি, নাকে প্রচুর সর্দি, ফ্রন্টাল, সাইনোসাইটিস দীর্ঘস্থায়ী প্রদাহ, চরম শ্লেষ্মা, সর্দি-কাশি যা সাইনাস ব্লকে পরিণত হয় এবং কানের আঠা (মধ্য কানে তরল জমা) এর সাথে সম্পর্কযুক্ত অবস্থায় ক্যালিয়াম বাইক্রোম দ্বারা ৪X ঔষধে উপশম হয়।

ক্যালিয়াম বাইক্রোম ঔষধের গুরুত্বপূর্ণ লক্ষণ : সমস্ত স্রাব শক্ত, গরম আবহাওয়ার ফলে যে সমস্যা হয় সৃষ্টি হয় তাহাতে ক্যালিয়াম বাইক্রোম দ্বারা উপকার হয়। গরম আবহাওয়ার সৃষ্টি সমস্যায় রোগী নাক দিয়ে শ্বাস নিতে  পারে না, নাকে চুলকানি, গলা ব্যথা়, গলা শুষ্ক ও রুক্ষ এবং স্ফীত, চকচকে এবং ফোলা, টনসিল বিস্তৃত  এবং গভীর আলসারের সাথে ঘা এবং গলার কণ্ঠস্বর মোটা, গলা লাল এবং প্রদাহ, শুষ্ক এবং রুক্ষ, প্যারোটিড গ্রন্থিগুলি ফুলা লক্ষণে কার্যকর।
এছাড়াও মুখের আলসার বা শুষ্ক, জ্বালাপোড়া ক্যালিয়াম বাইক্রোম খাওয়ার পরে গ্যাস্ট্রিকের লক্ষণগুলি উপশম করে। বাতজনিত উপসর্গ গুলি পুনরায় দেখা দেয়। উজ্জ্বল হলুদ জলের বমি করে। ব্যথা, ফুলে যাওয়া এবং শক্ত হওয়া এবং সমস্ত জয়েন্টে ব্যথা, হাঁটার সময় গোড়ালির ব্যথায় ক্যালি বাইক্রোম উপকারী।

ক্যালিয়াম বাইক্রোম ৪X  ঔষধ সেবন বিধি : ট্যাবলেটগুলি মুখে রাখুন এবং তাদের জিহ্বার নীচে দ্রবীভূত করতে দিন। প্রাপ্তবয়স্করা ও কিশোর-কিশোরীরা (১২ বছর বা তার চেয়ে বেশি বয়সী) ২টি ট্যাবলেট, প্রতিদিন সাকাল- রাত (দুইবার) অথবা রেজিষ্টার্ড চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী সেবন করুণ। দীর্ঘস্থায়ী সমাধানের ক্ষেত্রে প্রতিদিন এক থেকে দুই বার সেবন করতে হবে। লক্ষণগুলির উন্নতির সাথে সাথে ডোজ কম করুন। যদি ঔষধ সেবন করেও উপশম না হয় তবে একজন বিশেষজ্ঞের সাথে পরামর্শ করুন।

ক্যালিয়াম বাইক্রোম ৪X  ঔষধের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া : অ্যালোপ্যাথি অথবা আয়ুর্বেদিক বা অন্যান্য ঔষধ থাকলেও হোমিওপ্যাথিক ট্যাবলেটগুলি সেবন করা নিরাপদ। হোমিওপ্যাথিক ওষুধগুলি অন্যান্য ওষুধের ক্রিয়ায় হস্তক্ষেপ করে না। এটি নিরাপদ এবং কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই।

ক্যালিয়াম বাইক্রোম ৪X ঔষধের সতর্কতা : আপনি যখন ওষুধ খান তখন খাবারের ১৫ মিনিট আগে বা ১৫ মিনিটের পরে ঔষধ খাওয়া উত্তম।

বিশেষ দ্রষ্টব্য  :ক্যালিয়াম বাইক্রোম ৪X গর্ভবতী বা বুকের দুধ বাচ্চা থাকলে ঔষধ খাওয়ার আগে হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসককে পরামর্শে সেবন করুন। তবে যে কোন ঔষধ নিজে খাওয়া ঠিক নয়। এতে করে শারীরিক ও মানুষিক ক্ষতি হতে পারে। সব সময় একজন রেজিষ্টার্ড চিকিৎসকের পরামর্শে ঔষধ সেবন করুণ।

বাধা নিষেধ : ওষুধ খাওয়ার সময় তামাক খাওয়া বা অ্যালকোহল পান করা ঠিক নয়।

ক্যালিয়াম বাইক্রোম ৪X ঔষধ সংরক্ষণ : আলো-বাতাস, সুগন্ধ-দগন্ধ থেকে দুরে শীতল ও শুস্কস্থানে, শিশুদের নাগাল এর বাইরে রাখুন।

আরোগ্য হোমিও হল এডমিন : এ ওয়েব সাইটের মুল উদ্দেশ্যে হচ্ছে স্বাস্থ্য সম্পের্ক কিছু দান করা বা তুলে ধরা। সাধার মনুষের উপকার হবে। বিশেষ করে হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসক ও ছাত্ররা উপকৃত হবেন। এ ওয়েব সাইটে থাকছে পুরুষ স্বাস্থ্য বা যৌনস্বাস্থ্য, গাইনি স্বাস্থ্য, শিশুস্বাস্থ্য, মাদার টিংচার, সিরাপ, বম্বিনেশন ঔষধ, বাইকেমিক ঔষধ, হোমিওপ্যাথিক বই, ইউনানি, হামদর্দ, হারবাল, ভেজষ, স্বাস্থ্য কথা ইত্যাদি। এই ওয়েব সাইটটি কে কোন জেলা বা দেশ থেকে দেখছেন লাইক – কমেন্ট করে জানিয়ে দিন। যদি ভালো লাগে তবে শেয়ার করে আপনার বন্ধুদের জানিয়ে দিন।


এ জাতীয় আরো খবর.......
Design & Developed BY FlameDev