মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৮:৩১ পূর্বাহ্ন

কালি আর্সেনিকোসাম (৩x-৬x)

আরোগ্য হোমিও হল / ২১৮ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশ কালঃ বৃহস্পতিবার, ১৫ জুন, ২০২৩, ৫:৩৩ পূর্বাহ্ন

কালি আর্সেনিকোসাম (৩x-৬x)

Kali Arsenicosum (3x-6x)

ক্যাটাগরি : হোমিওপ্যাথিক ঔষধ।

প্রস্তত কারী: উইলমার শোয়াবে ইন্ডিয়া (হোমিওপ্যাথিক ফার্মকোপিয়া অনুযায়ী  কালি আর্সেনিকোসাম (৩x-৬x) প্রস্তুত|

কালি আর্সেনিকোসাম (৩x-৬x) ঔষধের ব্যবহার : শুষ্ক, শুষ্ক ত্বক, কানের পিছনে হারপিস জোস্টার, ঘাড়ের পাশে, কাঁধ, উপরের বাহু, বুকের জন্য অত্যান্ত কার্যকরী। যেমন – শুষ্ক ক্রনিক একজিমা, বাহুগুলির ত্বক প্রাকৃতিক থেকে মোটা, রুক্ষ, এপিডার্মিসের ক্ষীণ এক্সফোলিয়েশনে আচ্ছাদিত, অসংখ্য প্যাচের সোরিয়াসিস উপশম হয়। মুখের নোডুলার বিস্ফোরণে অত্যান্ত কার্যকর।

এছাড়াও ফোড়া মাড়ি ফুলে যাওয়া এবং কোমল উপশম করে। গলা শুকনো এবং ব্যাথা, প্রচুর লালা প্রবাহের সাথে সংকুচিত গলা, খাবারের পরে অবিরাম ব্যথা এবং বমি বমি ভাব, ইনজেস্তার ঘন ঘন বমি। অন্ত্রে জ্বলন্ত ব্যথা হয়, অদম্য তৃষ্ণা, পেট টান এবং বেদনাদায়ক, মলদ্বারে লাল-গরম লোহার মতো অনুভূতি সহ অনৈচ্ছিক জলযুক্ত মল। অন্ত্রে ঘন ঘন বেদনা, এবং মলের জন্য প্রায় অবিরাম ইচ্ছা, কিন্ত মল বের হয় না। পুরো পেটে যথেষ্ট কোমলতা, যা প্রসারিত হয়। এটি যোনি থেকে দুর্গন্ধযুক্ত স্রাবের ক্ষেত্রে উপকারী।

কালি আর্সেনিকোসাম (৩x-৬x) ঔষধের সাধারণ লক্ষণ : জিভ ফুলা , মুখে খুব বড় মনে হয়েছে। কম ক্ষুধায় এ ঔষধটি অত্যান্ত উপকারী। হিংস্র ডায়রিয়া – মল সাদা, জলযুক্ত, ফেনাযুক্ত, মেরুদণ্ডের নিচের অনেক ব্যথা অসহনীয় চুলকানি, শুষ্ক, আঁশযুক্ত, ব্রণ, মাসিকের সময় pustules খারাপ।

কালি আর্সেনিকোসাম (৩x-৬x) ঔষধ সেবন বিধি : ট্যাবলেটগুলি মুখে রাখুন এবং তাদের জিহ্বার নীচে দ্রবীভূত করতে দিন। প্রাপ্তবয়স্করা ও কিশোর-কিশোরীরা (১২ বছর বা তার চেয়ে বেশি বয়সী) ২টি ট্যাবলেট, প্রতিদিন সাকাল- রাত (দুইবার) অথবা রেজিষ্টার্ড চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী সেবন করুণ। দীর্ঘস্থায়ী সমাধানের ক্ষেত্রে প্রতিদিন এক থেকে দুই বার সেবন করতে হবে। লক্ষণগুলির উন্নতির সাথে সাথে ডোজ কম করুন। যদি ঔষধ সেবন করেও উপশম না হয় তবে একজন বিশেষজ্ঞের সাথে পরামর্শ করুন।

কালি আর্সেনিকোসাম (৩x-৬x) ঔষধের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া : অ্যালোপ্যাথি অথবা আয়ুর্বেদিক বা অন্যান্য ঔষধ থাকলেও হোমিওপ্যাথিক ট্যাবলেটগুলি সেবন করা নিরাপদ। হোমিওপ্যাথিক ওষুধগুলি অন্যান্য ওষুধের ক্রিয়ায় হস্তক্ষেপ করে না। এটি নিরাপদ এবং কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই।

কালি আর্সেনিকোসাম (৩x-৬x) ঔষধের সতর্কতা : আপনি যখন ওষুধ খান তখন খাবারের ১৫ মিনিট আগে বা ১৫ মিনিটের পরে ঔষধ খাওয়া উত্তম।

বিশেষ দ্রষ্টব্য :কালি আর্সেনিকোসাম (৩x-৬x) গর্ভবতী বা বুকের দুধ বাচ্চা থাকলে ঔষধ খাওয়ার আগে হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসককে পরামর্শে সেবন করুন। তবে যে কোন ঔষধ নিজে খাওয়া ঠিক নয়। এতে করে শারীরিক ও মানুষিক ক্ষতি হতে পারে। সব সময় একজন রেজিষ্টার্ড চিকিৎসকের পরামর্শে ঔষধ সেবন করুণ।

বাধা নিষেধ : ওষুধ খাওয়ার সময় তামাক খাওয়া বা অ্যালকোহল পান করা ঠিক নয়।

কালি আর্সেনিকোসাম (৩x-৬x) ঔষধ সংরক্ষণ : আলো-বাতাস, সুগন্ধ-দগন্ধ থেকে দুরে শীতল ও শুস্কস্থানে, শিশুদের নাগাল এর বাইরে রাখুন।

আরোগ্য হোমিও হল এডমিন : এ ওয়েব সাইটের মুল উদ্দেশ্যে হচ্ছে স্বাস্থ্য সম্পের্ক কিছু দান করা বা তুলে ধরা। সাধার মনুষের উপকার হবে। বিশেষ করে হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসক ও ছাত্ররা উপকৃত হবেন। এ ওয়েব সাইটে থাকছে পুরুষ স্বাস্থ্য বা যৌনস্বাস্থ্য, গাইনি স্বাস্থ্য, শিশুস্বাস্থ্য, মাদার টিংচার, সিরাপ, বম্বিনেশন ঔষধ, বাইকেমিক ঔষধ, হোমিওপ্যাথিক বই, ইউনানি, হামদর্দ, হারবাল, ভেজষ, স্বাস্থ্য কথা ইত্যাদি। এই ওয়েব সাইটটি কে কোন জেলা বা দেশ থেকে দেখছেন লাইক – কমেন্ট করে জানিয়ে দিন। যদি ভালো লাগে তবে শেয়ার করে আপনার বন্ধুদের জানিয়ে দিন।


এ জাতীয় আরো খবর.......
Design & Developed BY FlameDev