সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ০১:২৩ অপরাহ্ন

অ্যাডাল-৮৫ (এনার্জি টনিক)

আরোগ্য হোমিও হল / ২৬৮ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশ কালঃ শনিবার, ১০ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪, ৬:৫২ অপরাহ্ন
অ্যাডেল নং- ৮৫ (এনার্জি ড্রপস)

Adele – 85 (NEU regen Energy drops)

অ্যাডাল – ৮৫ (এনার্জি ড্রপস)

আরোগ্য হোমিও হল এ সবাইকে স্বাগতম। আশা করছি, সবাই ভালো আছেন। আজ আমরা এখানে আলোচনা করবো অ্যাডাল – ৮৫ (এনার্জি টনিক) নিয়ে আজকে জনবো, এটা সবার জানা জরুরী! তো আর কথা নয় – সরাসরি মূল আলোচনায়।

প্রস্তুত প্রণালী : জার্মান কম্বিনেশ হোমিওপ্যাথিক টনিক।

ব্যবহার : দৃঢ়তা, শক্তি, জীবনীশক্তি তৈরি করে এবং মানসিক ও শারীরিক কর্মক্ষমতা উন্নত করে ক্লান্তি কাটিযে উঠতে দ্রুত স্ট্রেন পুনরুদ্ধারের জন্য হোমিওপ্যাথি NEU regen টনিক।

ভুমিকা : দীর্ঘস্থায়ী ক্লান্তি সিন্ড্রোমের উপসর্গের চিকিৎসায় ঘঊট-ৎবমবহ ঞড়হরপ হল বেশ কিছু হোমিওপ্যাথিক ভেষজ যেমন আর্জেন্টাম নাইট্রিকাম,সিনকোনা পিউবসেনস ইত্যাদির একটি মিশ্রণ, যা তাদের মানসিক ও শারীরিক অথবা মানসিক অবসাদ দূর করার ক্ষমতার জন্য নির্বাচিত। এই টনিক অঙ্গগুলির সঠিক কার্যকারিতা পুনরুদ্ধার করে শরীরের কর্মক্ষমতা ভারসাম্য বজায় রাখতে সাহায্য করে। এটি উদ্বেগ কমাতে ও মস্তিষ্কের কার্যকারিতার অভাব এবং দুর্বল স্মৃতিশক্তির চিৎিসায় সহায়তা করে।

অ্যাডাল নং- ৮৫ টনিক এর ইঙ্গিত : সঠিক অঙ্গের কার্যকারিতা পুনরুদ্ধার করে মানসিক, শারীরিক ও মানসিক ক্লান্তি কাটিয়ে ওঠা। উদ্বেগ, দুর্বল স্মৃতি।

অ্যাডেল নং- ৮৫ ঔষধের লক্ষণ :
কাজ, খেলাধুলা বা যেকোনো শারীরিক এবং মানসিক ক্রিয়াকলাপের সময় শরীরে যখন কর্মক্ষমতা সম্পর্কিত চাপ দেওয়া হয় বা শারীরিক শক্তি দ্বারা টেনে বা ধাক্কা দেওয়া হয় তখন শরীরে একটি স্ট্রেন ঘটে। শারীরিক চাপের লক্ষণ গুলি যেমন – ব্যথা বা কোমলতা, আক্রান্ত স্থান অথবা শরীরের অংশে লালভাব বা ঘা, গতি সীমিত, পেশীর খিঁচুনি অথবা ফোলাভাব, পেশীর দুর্বলতা। অন্যদিকে অতিরিক্ত কাজ, সময়সীমা অথবা প্রতিশ্রুতি সংক্রান্ত কাজের টানাটানি, কিছু বেদনাদায়ক জীবনের কিছু অভিজ্ঞতা যেমন – শোক, মানসিক চাপ, ঘুমের অভাব, মাদকের ব্যবহার, আক্রমণ, অপব্যবহার বা দুর্ঘটনা, এতে মানসিক চাপ সৃষ্টি হয়। মানসিক স্বাস্থ্য সংকট অথবা স্নায়বিক ভাঙ্গন অত্যন্ত পরিবর্তনশীল, ব্যক্তির শরীরের উপর নির্ভর করে কয়েক ঘন্টা থেকে সপ্তাহ পর্যন্ত স্থায়ী হয়। মানসিক এবং শারীরিক চাপ এবং এটি পুনরুদ্ধার অন্যটির উপর নির্ভরশীল। স্ট্রেন পুনরুদ্ধারে দিন থেকে কয়েক সপ্তাহের মধ্যে হতে পারে। যদিও পেশী বা টেন্ডন ক্ষতে অনেক ক্ষেত্রেই নিজেরাই প্রকৃতিক ভাবে নিরাময় হয়, তবে আরও গুরুতর পেশীর আঘাতের ক্ষেত্রে চিকিৎসার প্রয়োজন হতে পারে। অন্যদিকে মানসিক চাপ, পুনরুদ্ধার, সহানুভূতি, স্ব-নিয়ন্ত্রণ, স্ব-সহানুভূতি, স্ব-গ্রহণযোগ্যতা, মননশীলতা এবং একীকরণের মাধ্যমে অর্জন করা যেতে পারে।

আরও পড়ুন – বায়ো কম্বিনেশন ১ (রক্তশূন্যতা)

অ্যাডেল নং- ৮৫ টনিক এর উপকারিতা :
স্নায়ু স্বাস্থ্য (নার্ভাইন টনিক) পুনরুদ্ধারের গতি বাড়ায়, স্নায়বিক অবস্থা থেকে ক্ষুধা লাগার মতো শারীরিক মোকাবেলা করে, পেশীর দুর্বলতা দূর করতে এবং স্নায়ু শক্তির অভাব কমাতে সাহায্য করে। অঙ্গের কার্যকারিতা বিশেষ করে পেট, লিভার, গলব্লাডার এবং অগ্ন্যাশয়কে উন্নত করে। এর উপাদানগুলি একটি প্রাকৃতিক ট্রানকুইলাইজার হিসাবে কাজ করে, উত্তেজিত অবস্থাকে শান্ত করে ও এবং মানসিক চাপ দূর করে। এটি অসংযম, মূত্রনালীতে রক্তপাত এবং হলুদ রঙের প্রস্রাবের মতো ইউরোলজিক্যাল সমস্যা থেকে মুক্তি দিতে সাহায্য করে। টেনশন এবং বিষণ্নতা কমাতে সহায়ক এবং আপনার মেজাজ উন্নত করতে টনিক হিসেবে কাজ করে।

অ্যাডেল নং- ৮৫ টনিক এর মুল উপদাদান মিশ্রণ :
(ক) আর্জেন্টাম নাইট্রিকাম 6x (Argentum nitricum 6x)
(খ) অ্যাভেনা স্যাটিভা 4x (Avena Sativa) 4x
(গ) কোনিয়াম ম্যাকুল্যাটাম 4x (Conium maculatum 4x)
(ঘ) ডেলফিনিয়াম স্ট্যাফিসাগ্রিয়া 6x (Delphinium staphysagria 6x)
(ঙ) প্যানাক্স জিনসেং 4x (Panax ginseng) 4x
(চ) পাইপার মেথিস্টিকাম 8x (Piper methysticum 8x)
(ছ) সিনকোনা পিউবসেনস -চায়না (Cinchona Pubescens –China 4x)
(জ) স্ট্রাইচনোস নাক্স ভোমিকা 4x (Stychnos nux vomica 4x)

আরও পড়ুন – এইচ আর – ১৬ (বিষণ্নতা, উদ্বেগ এবং টেনশনের চিকিৎসায় কার্যকর)

অ্যাডেল ৮৫ টনিক ঔষধে কার্যকাতিরা :
(১) আর্জেন্টাম নাইট্রিকাম (Argentum nitricum ) : মানসিক চাপের কারণে ব্যর্থতার খুব ভয়, মানসিক অবসাদ, অনেক কিছু ভুলে যায় এবং মাথাব্যথা অন্তর্ভুক্ত শারীরবৃত্তীয় অবস্থায় কার্যকর। এটিতে অ্যান্টি-ক্যাটারার এবং অ্যান্টিটক্সিক বৈশিষ্ট্য রয়েছে যাহার ফলে এটি উপরের পেটের উপসর্গের চিকিৎসায় ব্যবহার হয়।

(২) অ্যাভেনা স্যাটিভা (Avena Sativa) : মানসিক চাপ, উদ্বেগ, ক্লান্তি ও অস্থিরতার কারণে ব্যাহত ঘুম তাদের জন্য এটি প্রযোজ্য এবং ক্ষুধা বৃদ্ধি করে

(৩) কোনিয়াম ম্যাকুল্যাটাম (Conium maculatum ) : এটি শরীরকে উদ্দীপিত করে যা শরীরের বিষণ্নতা, ভয়, স্মৃতিশক্তি হ্রাস, কাজ করতে অপছন্দ এবং বিভিন্ন ধরনের নিদ্রাহীনতায় ব্যবহার হয়।

(৪) ডেলফিনিয়াম স্ট্যাফিসাগ্রিয়া (Delphinium staphysagria ) : ক্রনিক ক্লান্তি সিন্ড্রোমের লক্ষণ যেমন – নার্ভাস হাইপারস্টিমুলেশন সহ বিরক্তি, যৌন কর্মহীনতা, রাগ ও ঘনত্বের অক্ষমতায় কার্যকরী।

আরও পড়ুন – আলফা টনি সিরাপ (শরীরে শক্তি যোগায় ও হজম শক্তি বৃদ্ধি করে)

(৫) প্যানাক্স জিনসেং (Panax ginseng) : শারীরিক ও মানসিক ক্লান্তির সাথে মিলিত স্নায়ুতন্ত্রের সাধারণ ক্লান্তির লক্ষণগুলির চিকিৎসা করে। এটি মনোরম ভারসাম্য প্রভাব উৎপাদন করে। মানুসিক চাপ নিয়ন্ত্রণ করে।

(৬) পাইপার মেথিস্টিকাম (Piper methysticum ) : এটি একজন ব্যক্তির মেজাজের পরিবর্তন করে হালকা করতে সাহায্য করে। এটি প্রশান্তি আনে অথবা ট্রানকুইলাইজার হিসেবে কাজ করে (টেনশন বা উদ্বেগ কমাতে ওষুধ নেওয়া হয়) তাদওে ক্ষেত্রে ব্যবহার হয়।

(৭) স্ট্রাইচনোস নাক্স ভোমিকা (Stychnos nux vomica) : এটি পেটের যাবতীয় সমস্যা ও ধূমপান ইত্যাদির সাথে সম্পর্কিত শারীরিক ও মানসিক অবস্থার চিকিৎসা করে।

(৮) সিনকোনা পিউবসেনস -চায়না (Cinchona Pubescens –China ) : এটি সাধারণ দুর্বলতা, স্নায়বিক দুর্বলতা এবং সংক্রামনের কারণে অসুস্থতা যেুমন – লিভার, পিত্ত, অগ্ন্যাশয় ও পাকস্থলীরও চিকিৎসা করে। এটি ক্ষুধা নিয়ন্ত্রন করতে সাহায্য করে এবং শরীরে গ্যাস জমা নিয়ন্ত্রণ করে।

অ্যাডাল ৮৫ টনিক ঔষধ সেবন বিধি : প্রাপ্তবয়স্করা ২ চা চামচ ঔষধ কিছু তরল সহ দিনে ২ বার সেবন করতে হবে। অথবা রেজিষ্টার্ড হোমিওপ্যথি চিকিৎসকের পরামর্শে সেবন করতে হবে।

আরও পড়ুন – কেন্ট ১২ (অনিয়মিত মাসিক রোগে কার্যকর)

চিকিৎসকের কিছু পরারর্শ : ওষুধ খাওয়ার সময় মুখের কোনো তীব্র গন্ধ যেমন কফি, পেঁয়াজ, শিং, পুদিনা, কর্পূর, রসুন ইত্যাদি এড়িয়ে চলুন। খাবার/পানীয়/অন্য কোনো ওষুধ এবং অ্যালোপ্যাথিক ওষুধের মধ্যে অন্তত আধা ঘণ্টার ব্যবধান রাখুন

সর্তবলী : হোমিওপ্যাথি কম্বেনেশন ঔষধগুলি সাধারণত লক্ষণে উপর ভিভি করে ব্যবহার করা হয় না। মনে রাখবেন হোমিওপ্যাথিক একটি লক্ষণ ভিত্তিক চিকিৎসা ব্যবস্থা, বেশি লক্ষণে সঙ্গে মিলিলে ইতবে ব্যবহার করিবেন। না হলে এর ফলাফল ব্যাথিক্রম হতে পারে।

পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া : এই ঔষধ সেবনে কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই।

ঔষধ সংরক্ষণ : সুগন্ধ-দুগন্ধ, আলো-বাতাস থেকে দুরে, শিশুদের নাগালে বাহিরে রাখুন।

আরোগ্য হোমিও হল এডমিন : আজকের আলোচনা এখানেই শেষ করলাম। আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছেন। নতুন কোনো স্বাস্থ্য টিপস নিয়ে হাজির হবো অন্য দিন। এই ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তথ্যগুলো কেবল স্বাস্থ্য সেবা সম্বন্ধে জ্ঞান আহরণের জন্য। অনুগ্রহ করে রেজিষ্টার্ড হোমিওপ্যাথিক পরামর্শ নিয়ে ওষুধ সেবন করুন। চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ সেবনে আপনার শারীরিক বা মানসিক ক্ষতি হতে পারে। প্রয়োজনে, আমাদের সহযোগিতা নিন। এই ওয়েব সাইটটি কে কোন জেলা বা দেশ থেকে দেখছেন “লাইক – কমেন্ট” করে জানিয়ে দিন। যদি ভালো লাগে তবে “শেয়ার” করে আপনার বন্ধুদের জানিয়ে দিন। সবাই সুস্থ্য, সুন্দর ও ভালো থাকুন। নিজের প্রতি যত্নবান হউন এবং সাবধানে থাকুন। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।


এ জাতীয় আরো খবর.......
Design & Developed BY FlameDev