শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ০২:৫১ অপরাহ্ন

অ্যাডাল-৮২ (লিভার টনিক)

আরোগ্য হোমিও হল / ২৯৮ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশ কালঃ সোমবার, ১২ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪, ৬:২৪ অপরাহ্ন
অ্যাডেল নং – ৮২ (লিভার টনিক)

Adel No – 82 (Hepat Tonic)

অ্যাডাল নং – ৮২ (লিভার টনিক)

আরোগ্য হোমিও হল এ সবাইকে স্বাগতম। আশা করছি, সবাই ভালো আছেন। আজ আমরা এখানে আলোচনা করবো অ্যাডাল নং – ৮২ (লিভার টনিক) হোমিওপ্যাথি কম্বিনেশন ঔষধ নিয়ে আজকে জনবো, এটা সবার জানা জরুরী! তো আর কথা নয় – সরাসরি মূল আলোচনায়।

প্রস্তুত প্রণালী : জার্মান কম্বিনেশন হোমিওপ্যাথি ঔষধ।

ব্যবহার : অলস বর্ধিত লিভারের কার্যকারিতা উন্নতি করে এবং লিভারের ক্ষতি থেকে প্রতিরোধে সহায়তা করে। সিরোসিসের মতো দীর্ঘস্থায়ী লিভার রোগের সহায়ক চিকিৎসায় ব্যবহার করা হয়।

অ্যাডাল – ৮২ (লিভার টনিকটি বিশেষভাবে প্রণীত সংমিশ্রণটি যকৃতের কার্যকারিতা স্বাভাবিকরণে সহায়তা করে হেপাটিক কোষ টিস্যুগুলিকে পুনরুজ্জীবিত করে এবং টোন আপ করে। একটি জটিল থেরাপির অংশ হিসাবে অনেকে ব্যবহার করে, এই টনিক ঔষধটি বিষাক্ত লিভারের ক্ষতি, অ্যালকোহলের অপব্যবহারের কারণে হেপাটাইটিস, স্থুলতা, ডায়াবেটিস ও রক্তে উচ্চ স্বরের চর্বি কমাতে সাহায্য করে ।

আরও পড়ুন – এইচ আর – ০২ (হেপাটাইটিস সহ লিভারের রোগে কার্যকর)

অ্যাডাল – ৮২ হোমিওপ্যাথি কম্বিনেশন ঔষধের মিশ্রণ :
(ক) বোল্ডো 2x (Boldo 2x)।
(খ) ব্রায়োনিয়া 6x (Bryonia 6x)।
(গ) র্কাডুয়াস মেরিয়েনাস 4x (Carduus mar 4x)।
(ঘ) সাইনারা স্কেলিমাস 6x (Cynara mt Fumaria 6x)।
(ঙ) হাইড্রাস্টিস ক্যান 3x (Hydratstis Can 3x)।
(চ) তারাক্সাকাম Q (Taraxacum Q)।
(ছ) চেলিডোনিয়াম 6x (Chelidonium 6x)।

আরও পড়ুন এইচ আর – ১৭ (হেপাটাইটিস ও পিত্তথলির পাথরের চিকিৎসায় কার্যকর)

অ্যাডাল – ৮৬ হোমিওপ্যাথি কম্বিনেশন ঔষধের কার্যকারিতা :

(১) বোল্ডো (Boldo) : এটি পিত্ত প্রবাহ বৃদ্ধিতে কার্যকর। এর আরেকটি বৈশিষ্ট্য হল ইউরিয়া নির্গমন এবং মূত্রবর্ধকে কার্যকরী।

(২) ব্রায়োনিয়া (Bryonia ) : ব্রায়োনিয়া শ্লেম্মা ঝিল্লির প্রদাহ দূর করে যা পেশী ও জয়েন্টে ছুরিকাঘাতের ব্যাথা। এই পদার্থটি অন্ত্রের নির্গমনকেও উদ্দীপিত করে এবং সংক্রমণের চিকিৎসায় সহায্য করে ।

(৩) র্কাডুয়াস মেরিয়েনাস (Carduus mar) : লিভার এবং অন্যান্য পোর্টাল সিস্টেমকে প্রভাবিত করে। যকৃতের বেদনাদায়ক ও ফোলা, জন্ডিস, পিত্তথলির ক্যালকুলি, কোলাঞ্জিাইটিস বা সিরোসিসের প্রাথমিক পর্যায়ে ব্যবহারের প্রধান ক্ষেত্র। ক্ষুধার অভাব, বমি বা বমি ভাব, বিরক্তি, প্রচুর ডায়ারিয়া ও কোষ্ঠকাঠিন্যের সমাধান করে।

(৪) সাইনারা স্কেলিমাস (Cynara mt Fumaria) : এটি টিস্যু থেকে ইউরিক অ্যাসিড সহ বিষাক্ত বর্জ্য পদার্থের সাধারণ নির্গমন ও নির্মুলের প্রচার করে, হজমশক্তি বৃদ্ধি করে এবং একটি প্রদাহ বিরোধী এবং মূত্রবর্ধক হিসাবেও কাজ করে। পিত্ত প্রবাহের প্রচারের পাশাপাশি অন্ত্রের ক্রিয়াকলাপের উদ্দীপনাটি ফুমারিয়ার কেন্দ্র পর্যায়ে নিয়ে যায়।

(৫) হাইড্রাস্টিস ক্যান (Hydratstis Can) : লিভারের আস্তরণের প্রদাহ ও লিভার ক্যান্সারের ক্ষেত্রে সাহায্য করার জন্য খুব পরিচিত। বিশেষ করে এটি দুর্বল গঠনের লোকদের জন্য উপযুক্ত। যারা দীর্ঘস্থায়ী মদ্যপায়ী তাদরে জন্য ভাল কাজ করে, ত্বক সাধারণ ফ্যাকাশে, এবং রোগীর জন্ডিস হওয়ার জন্য স্পর্শ করতে ব্যাথা হয়। এর সাথে, পিত্তথলি ও পিত্তনালীতেও প্রদাহ হতে পারে তাদের জন্য প্রযোজ্য।

আরও পড়ুন – কেন্ট ১১ (লিভার এবং গল ব্লাডার রোগে কার্যকর)

(৬) তারাক্সাকাম (Taraxacum) : কমপ্লেক্সটি তারাক্সকাম দ্বারা পরিপূরক। এই উদ্ভিদের সমস্ত অংশের তিক্ত স্বাদের পাশাপাশি ফুলের হলুদ রঙ লিভার এবং গলব্লাডার সিস্টেমের উপর প্রভাবের ইঙ্গিত দেয়।

(৭) চেলিডোনিয়াম (Chelidonium) : এটি ফ্যাটি লিভারের সাথে ডান উপরের পেটে ব্যথার চিকিৎসায় ব্যবহৃত হয়। এই ধরনের সমস্যায়, লিভার বড় হতে পারে আবার কোষ্ঠকাঠিন্য বা বমি বমি ভাব, বমি হতে পারে। লিভার ও পিত্তথলির ভেসিকেলের উপর চাপের অনুভূতি সহ লিভারের ফুলে গিয়ে ডান কাঁধের বেড পর্যন্ত প্রসারিত হয়, কোলাগগ এই প্রতিকারের ফোকাস ক্ষেত্র।

অ্যাডাল নং – ৮৩ (হেপাট টনিক) সেবন বিধি : প্রাপ্ত বয়স্করা ২ চা-চামচ, শিশুরা ১ চা-চামচ খাবরে আগে দিনে ৩ বার অথবা রেজিষ্টার্ড হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসকের পরামর্শে সেবন করতে হবে।

আরও পড়ুন – কেন্ট ৫৪ (হেপাটাইটিস রোগে কার্যকর)

পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া : এই ঔষধ সেবনে কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই।

সর্তবলী : হোমিওপ্যাথি বায়ো কম্বেনেশন ঔষধগুলি সাধারণত লক্ষণে উপর ভিভি কওে ব্যবহার করা হয়। মনে রাখবেন হোমিওপ্যাথিক একটি লক্ষণ ভিত্তিক চিকিৎসা ব্যবস্থা, লক্ষণে সঙ্গে মিলিলে তবেই ব্যবহার করিবেন।

অ্যাডাল নং – ৮২ (হেপাট টনিক) সংরক্ষণ : সগন্ধ-দুগন্ধ, আলো-বাতাস থেকে দুরে, শীতল ও শুস্ক স্থানে, শিশুদের নাগালের বাইরে রাখুন।

আরোগ্য হোমিও হল এডমিন : আজকের আলোচনা এখানেই শেষ করলাম। আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছেন। নতুন কোনো স্বাস্থ্য টিপস নিয়ে হাজির হবো অন্য দিন।এই ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তথ্যগুলো কেবল স্বাস্থ্য সেবা সম্বন্ধে জ্ঞান আহরণের জন্য। অনুগ্রহ করে রেজিষ্টার্ড হোমিওপ্যাথিক পরামর্শ নিয়ে ওষুধ সেবন করুন। চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ সেবনে আপনার শারীরিক বা মানসিক ক্ষতি হতে পারে। প্রয়োজনে, আমাদের সহযোগিতা নিন। এই ওয়েব সাইটটি কে কোন জেলা বা দেশ থেকে দেখছেন “লাইক – কমেন্ট” করে জানিয়ে দিন। যদি ভালো লাগে তবে “শেয়ার” করে আপনার বন্ধুদের জানিয়ে দিন। সবাই সুস্থ্য, সুন্দর ও ভালো থাকুন। নিজের প্রতি যত্নবান হউন এবং সাবধানে থাকুন। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।


এ জাতীয় আরো খবর.......
Design & Developed BY FlameDev