সোমবার, ২৪ জুন ২০২৪, ১২:৪৪ অপরাহ্ন

অ্যাডাল-১২ (চর্ম রোগ)

আরোগ্য হোমিও হল / ৯২ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশ কালঃ বুধবার, ১৩ মার্চ, ২০২৪, ৫:৪৭ অপরাহ্ন

অ্যাডাল-১২ (চর্ম রোগ)
Adel-12 (skin disease)
আরোগ্য হোমিও হল এ সবাইকে স্বাগতম। আশা করছি, সবাই ভালো আছেন। আজ আমরা এখানে আলোচনা করবো ”অ্যাডাল-১২ (চর্ম রোগ)” কম্বিনেশন হোমিওপ্যাথি ঔষধ নিয়ে আজকে জনবো, এটা সবার জানা জরুরী! তো আর কথা নয় – সরাসরি মূল আলোচনায়।
প্রস্তুত প্রণালী : জার্মান কম্বিনেশন হোমিওপ্যাথি ঔষধ।
ব্যবহার : অ্যাডাল নং – ১২ ডারকাট ড্রপসটি সোরিয়াসিস, পিম্পলস (ব্রণ ভালগারিস), একজিমা, , নিউরোডার্মাটাইটিস, ব্রণ (ব্রণ ভালগারিস), বয়ঃসন্ধিকালে ফুসকুড়ি, ফোঁড়া, হারপিস, দুধের ভূত্বক এবং ছত্রাক এবং অন্যান্য চর্মরোগে ব্যবহার করা হয়।
অ্যাডাল- ১২ ডারকাট ড্রপসের লক্ষণ : এটি সাধারণত চর্মরোগে কাজ করে যেমন –  একজিমা (ত্বকের ছোপ দাগ, ত্বক রুক্ষ হয়ে যাওয়া এবং ফোস্কা ফোস্কা হয়ে যাওয়া, সেই ফোস্কা ফুলে যাওয়ায় ফলে রক্তপাত ও চুলকানি হয়), সোরিয়াসিস (চর্মরোগ যা  দেখতে লাল, চুলকানি, আঁশযুক্ত ছোপ দ্বারা চিহ্নিত করা হয়), নিউরো ডার্মাটাইটিস (চর্মরোগ) ত্বকের অবস্থা যা চুলকানি ত্বকের প্যাচ দিয়ে শুরু হয় ও আক্রান্ত ত্বক পুরু এবং চামড়াযুক্ত হয়ে যায়),  ব্রণ (ব্রণ ভালগারিস)। এটি বয়ঃসন্ধিকালে ফুসকুড়ি যা (যৌন পরিপক্কতা), ফোঁড়া, হারপিস ভাইরাস দ্বারা সৃষ্ট ভাইরাস রোগের গ্রুপ, ত্বককে প্রভাবিত করে (হার্পিস)।  পোকামাকড়ের কামড়, ইন্টেরিগো (ত্বকের এক অংশে অন্য অংশে চুলকানোর কারণে প্রদাহ) এবং ছত্রাক (ত্বকের উপর লাল দাগ যা তীব্রভাবে চুলকায়)। এটি ব্যাকটেরিয়াজনিত ত্বকের সংক্রমণেরও চিকিৎসা করে যা পুঁজ এবং হলুদ খসখসে ঘা (ইমপেটিগো), ত্বকে একাধিক ফোঁড়া (কার্বাঙ্কেল) এবং ফোঁড়াযুক্ত ব্রণ তৈরি করে। এটি নিরাময় প্রক্রিয়াকে উদ্দীপিত করতে সাহায্য করে এবং প্রতিরক্ষা ব্যবস্থা এবং মলত্যাগের প্রক্রিয়াকে সহায়াতা করে।
অ্যাডাল – ১২ ডারকাট ড্রপসের ইঙ্গিত :
(ক) সোরিয়াসিস।
(খ) ব্রণ (ব্রণ ভালগারিস)।
(গ) একজিমা।
(ঘ) ইউরিটিকারিয়া।

আরও পড়ুন –   বায়ো-কম্বিনেশন ২০ (চর্ম, ত্বক, ব্রণ, হারপিস)

অ্যাডাল – ১২ ডারকাট ড্রপসের উপকারিতা :  এটির ত্বক হল সবচেয়ে বড় অঙ্গ যা ধ্বংসাবশেষ (আবর্জনার বিক্ষিপ্ত টুকরো অথবা অবশিষ্টাংশ), আর্দ্রতা ও ক্ষতিকারক অতিবেগুনি সূর্য রশ্মি থেকে সুরক্ষামূলক বাধা হিসাবে কাজ করে। প্যাথোজেনিক জীবগুলি কাটা ও খোলা ক্ষতের মাধ্যমে শরীরে প্রবেশ করে যা পরে সংক্রমণ এবং কিছু সাধারণ চর্মরোগের কারণ হয়। ফুসকুড়ি, প্রদাহ, লালভাব, জ্বলন ইত্যাদি অস্বাস্থ্যকর ত্বকের অবস্থার লক্ষণ দেখা দেয়। একজিমা,  ব্রণ ইত্যাদির মতো ৩০০০ টিরও বেশি ত্বকের ব্যাধিগুলি মানুষকে প্রভাবিত করে যা ত্বকের রঙ বা টেক্সচারে পরিবর্তন করে। বিরক্তিকর, অ্যালার্জি, জেনেটিক মেকআপ ইত্যাদির কারণে ত্বকের রোগের লক্ষণ দেখা দিতে পারে যা ফোসকা তৈরি করে এবং অন্যান্য ত্বকের রোগ দুর করে।

আরও পড়ুন –  এইচ আর – ২২ (একজিমা সোরিয়াসিসের চিকিৎসায় কার্যকর)

অ্যাডাল – ১২ ডারকাট ড্রপসের কম্বিনেশন :
(ক) লিডাম পাল 12x (Ledum palustre 12x)।
(খ) রানুনকুলাস বুলবোসাস 4x (Ranunculus bulbosus 4x)।
(গ) ফামারিয়া অফিসিয়ালস 4x (Fumaria Officinals 4x)।
(ঘ) সারসাপারিলা  4x (Sarsaparilla 4x)।
(ঙ) সিস্টাস ক্যানাডেনসিস 4x (Cystus candidiasis 4x)।
(চ) মেজেরিয়াম 4x (Mezereum 4x)।
(ছ) ভায়োলা ত্রিবর্ণ 8x (Viola tricolor 8x)।
(জ) হাইড্রোকোটাইল 6x (Hydrocotyledon 6x)।

আরও পড়ুন –  কেন্ট ১৮ (চর্ম রোগে কার্যকর)

অ্যাডাল – ১২ ডারকাট ড্রপসের কার্যকারিতা :
(১) লিডাম পাল (Ledum palustre) : এটি ইউরোলজিক্যাল ট্র্যাক্টের মাধ্যমে বিষাক্ত পদার্থ নির্গমনে সহায়তা করে। এটি ত্বকের সংক্রমণ, ফোঁড়া অথবা ফুরুনকল, পিম্পল এবং ডার্মাটাইটিস (ত্বকের অবস্থা যা লাল, ফোলা এবং কালশিটে, কখনও কখনও ছোট ফোস্কা সহ) সমাধানে কার্যকর। এছাড়াও, এটি পোকামাকড়ের হুল এবং একটি বোঝাযুক্ত লিম্ফ্যাটিক সিস্টেমের চিকিত্সায় কার্যকর।
(২) রানুনকুলাস বুলবোসাস (Ranunculus bulbosus) :  এটি ফোসকা, চুলকানি, একজিমা, ছুরিকাঘাতের ব্যথা ও হার্পিস জোস্টার ধরনের ত্বকের সাধারণ জ্বালাপোড়ায় রোগে কার্যকর। এর অ্যান্টি-সংক্রামক বৈশিষ্ট্য রোগ-সৃষ্টিকারী প্যাথোজেনগুলির স্পোর ধ্বংস করে, যাহার মধ্যে ছত্রাকও রয়েছে।
(৩) ফামারিয়া অফিসিয়ালস (Fumaria officinals) : এটি বিপাককে উন্নত করে। এটি পিত্তথলির নিঃসরণকে নিয়ন্ত্রণ করে এবং অন্ত্রের কার্যকে উদ্দীপিত করে। এটি টক্সিন বা বিপাকীয় বর্জ্য পদার্থ নির্গত করতেও সহায়তা করে যা ত্বক ও রক্ত পরিষ্কার করতে সহায্য করে।

আরও পড়ুন –  এন – ২৩ (একজিমা ড্রপস)

(৪) সারসাপারিলা (Sarsaparilla) :  দীর্ঘস্থায়ী ত্বকের ব্যাধি যেমন ক্রাস্টা ল্যাকটিয়া, একজিমা এবং সোরিয়াসিসের সাথে চুলকানি, পুঁজ এবং খোলা ঘা সহ চিকিৎসা করে। এটি কিডনির মাধ্যমে নির্গমনকে উদ্দীপিত করার জন্য মূত্রবর্ধক হিসাবেও কাজ করে (প্রস্রাবের বৃদ্ধি ঘটায়)।
(৫) সিস্টাস ক্যানাডেনসিস (Cystus candidiasis) : এটি চুলকানি, ত্বকে “ত্বকের উপর পিঁপড়ে চলার অনুভূতি”, সহ ক্র্যাম্প, হারপেটিফর্ম (হার্পিসের মতো) এবং দীর্ঘস্থায়ী ফুসকুড়ি নিরাময় করে যা প্রতিবন্ধী লিম্ফ্যাটিক সিস্টেমকে নির্দেশ করে।
(৬) মেজেরিয়াম (Mezereum) :  আলকাস ক্রুরিস (পায়ের আলসার), ত্বকের আলসার হারপিস জোস্টার (হারপিস জোস্টার দ্বারা সৃষ্ট নার্ভ গ্যাংলিয়ার বেদনাদায়ক তীব্র প্রদাহ) এর মতো গুরুতর চর্মরোগের চিকিৎসা করে। এটি স্থানীয় ত্বকের অবস্থা, স্নায়বিক লক্ষণ এবং চুলকানিও চিকিত্সা করে। এটি স্থানীয় ত্বকের অবস্থার চিকিত্সার পাশাপাশি, এই উদ্ভিদ চুলকানি এবং স্নায়বিক লক্ষণগুলি সমাধান করে।

আরও পড়ুন –  টেল্যুরিয়াম ৩x (চর্ম রোগে কার্যকরী)

(৭) ভায়োলা ত্রিবর্ণ (Viola tricolor) :  ত্বকের কঠিন যন্ত্রণা যেমন ইমপেটিগো এবং একজিমার চিকিৎসা করে যা পুরো শরীরকে ঢেকে রাখে। এটি কিডনির সাধারণ ডিটক্সিফিকেশন প্রক্রিয়াকে নির্গমন ক্ষমতাকে উদ্দীপিত করে।
(৮) হাইড্রোকোটাইল (Hydrocotyledon) : বৃত্তাকার, শুষ্ক ও আঁশযুক্ত সোরিয়াসিসের চিকিৎসা করে। এই পদার্থটি কার্যকরভাবে সমস্ত প্যাথোজেনিক ত্বকের সমস্যাগুলিকে দুর করে।
অ্যাডাল নং – ১২ ঔষধ সেবন বিধি : প্রাপ্ত বয়স্করা জন্য ১৫ থেকে ২০ ফোঁটা, শিশুরা ৭ থেকে ১০ ফোঁটা ঔষধ ১/৪  কাপ পানিতে মিশিয়ে দিনে ৩ বার অথবা রেজিষ্টার্ড হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসকের পরামর্শে সেবন করতে হবে।

আরও পড়ুন –  গ্রাফাইটিস অয়েন্টমেন্ট

চিকিৎসকের কিছু পরারর্শ : ওষুধ খাওয়ার সময় মুখের কোনো তীব্র গন্ধ যেমন কফি, পেঁয়াজ, শিং, পুদিনা, কর্পূর, রসুন ইত্যাদি এড়িয়ে চলুন। খাবার/পানীয়/অন্য কোনো ওষুধ এবং অ্যালোপ্যাথিক ওষুধের মধ্যে অন্তত আধা ঘণ্টার ব্যবধান রাখুন।

সতর্কতা : গর্ভবতী মা অথবা দুগ্ধদানকারী মায়েরা ঔষধ সেবনের পূর্বে রেজিষ্টার্ড হোমিওপ্যাথি চিকিৎসকের পরামর্শে ঔষধ সেবন করা উত্তম।

শর্তাবলী : কম্বেনেশন হোমিওপ্যাথি ঔষধগুলি সাধারণত লক্ষণে উপর ভিভি করে ব্যবহার করা হয়। মনে রাখবেন হোমিওপ্যাথিক সদৃশ্য বিধান একটি চিকিৎসা ব্যবস্থা, বেশি লক্ষণে সঙ্গে মিলিলে তবেই ব্যবহার যোগ্য। তা না হলে অবস্থার উপর নির্ভর করে ফলাফল পরিবর্তিত হতে পারে।
পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া : এই ঔষধ সেবনে কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়ানেই।
ঔষধ সরক্ষণ : সুস্ক ও শীতল স্থানে সুগন্ধ-দুগন্ধ, আলো-বাতাস থেকে দুরে, শিশুদের নাগালের বাহিরে রাখুন।
ঔষধের গুণগতমাণ : এটি একটি প্রাকৃতিক পণ্য, এটি কখনও কখনও সামান্য বৃষ্টিপাত অথবা মেঘলা হতে পারে, কিন্তু এটি পণ্যের গুণমান এবং এর কার্যকারিতা প্রভাবিত করে না। যদি এটি ঘটে তবে পণ্যটি ব্যবহার করার আগে ভালভাবে ঝাঁকি নিন। একবার আপনি সীলটি ভেঙে ফেললে, ওষুধগুলি দ্রুত ব্যবহার করা উচিত।
আরোগ্য হোমিও হল এডমিন : আজকের আলোচনা এখানেই শেষ করলাম। আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছেন। নতুন কোনো স্বাস্থ্য টিপস নিয়ে হাজির হবো অন্য দিন। এই ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তথ্যগুলো কেবল স্বাস্থ্য সেবা সম্বন্ধে জ্ঞান আহরণের জন্য। অনুগ্রহ করে রেজিষ্টার্ড হোমিওপ্যাথিক পরামর্শ নিয়ে ওষুধ সেবন করুন। চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ সেবনে আপনার শারীরিক বা মানসিক ক্ষতি হতে পারে। প্রয়োজনে, আমাদের সহযোগিতা নিন।  এই ওয়েব সাইটটি কে কোন জেলা বা দেশ থেকে দেখছেন “লাইক – কমেন্ট” করে জানিয়ে দিন। যদি ভালো লাগে তবে ”শেয়ার” করে আপনার বন্ধুদের জানিয়ে দিন।  সবাই সুস্থ্য, সুন্দর ও ভালো থাকুন। নিজের প্রতি যত্নবান হউন এবং সাবধানে থাকুন।  আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।


এ জাতীয় আরো খবর.......
Design & Developed BY FlameDev