মঙ্গলবার, ২৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৭:৪১ পূর্বাহ্ন

আর ১৮২ (স্টোমাটাইটিস ড্রপস)

আরোগ্য হোমিও হল / ৬০ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশ কালঃ বুধবার, ২৭ মার্চ, ২০২৪, ৩:৩২ অপরাহ্ন
আর ১৮২ (স্টোমাটাইটিস ড্রপস)

Dr. Reckeweg R182/ আর ১৮২ (স্টোমাটাইটিস ড্রপস)
আর ১৮২ (স্টোমাটাইটিস ড্রপস)
আরোগ্য হোমিও হল এ সবাইকে স্বাগতম। আশা করছি, সবাই ভালো আছেন। আজ আমরা এখানে আলোচনা করবো “ আর ১৮২ (স্টোমাইটিস ড্রপস)” কম্বিনেশন হোমিওপ্যাথি ঔষধ নিয়ে আজকে জনবো, এটা সবার জানা জরুরী! তো আর কথা নয় – সরাসরি মূল আলোচনায়।
প্রস্তুত প্রণালী : Dr. Reckeweg/ আর ১৮২ (স্টোমাটাইটিস ড্রপস) জার্মান কম্বিনেশন হোমিওপ্যাথি ঔষধ।
আর ১৮২ (স্টোমাটাইটিস ড্রপস) ইঙ্গিত : এটি মৌখিক মিউকোসার প্রদাহজনিত ক্ষত (যেমন অ্যাপথাই), থ্র্যাশের সহায়ক চিকিৎসা ও জিহ্বায় ভেরিকেলস।
আর ১৮২ স্টোমাটাইটিস ড্রপসটির লক্ষণ :  এটি অ্যালার্জি এবং হাইপার অ্যাসিডিটি ইত্যাদির কারণে মাসের স্নেহ কভার করে।
আর ১৮২ স্টোমাটাইটিস ড্রপসটির মুল উপদান মিশ্রণ :
(১) অ্যাসিড নাট্রিক (Acid nit)।
(২) আরাম ট্রিফ (Arum triph)।
(৩) বোরাক্স (Borax)।

আরও পড়ুন –  বায়ো কম্বিনেশন ১৮ (পেয়োরিয়া রোগ)

আর ১৮২ স্টোমাটাইটিস ড্রপসটির কার্যকারিতা :
(ক) অ্যাসিড নাট্রিক (Acid nit) : এটি শ্বাসকষ্ট, লালা, মাড়ির রক্তপাত, জিহ্বার পাশে বেদনাদায়ক ব্রণ, জিভ লাল, দাঁত আলগা, গাম্প নরম ও গানময়। নরম তালুতে আলসার, তীক্ষ্ণ, স্প্লিন্টারের মতো ব্যথা। পরিত্রাণ এবং ভবঃড়ৎ ড়ারং রক্তাক্ত সালভিয়া ইত্যাদি।
(খ) আরাম ট্রিফ (Arum triph) : এটি মুখ এবং তালুর ছাদে কাঁচা অনুভূতি মনে হয়। ঠোঁট ফাটা এবং জ্বলছে। মুখে ঘা এবং ফাটা ফাটা, জিহ্বা লাল, কালশিটে, পুরো মুখ কাঁচা। রক্তপাত না হওয়া পর্যন্ত ঠোঁট তোলা। সালভিয়া প্রচুর, তীক্ষ্ণ ও ক্ষয়কারী ইত্যাদি।
(গ) বোরাক্স (Borax) : এটি Aphthae বৃদ্ধির মত সাদা ছত্রাক। মুখ গরম ও কোমল, খাওয়ার স্পর্শে আলসার থেকে রক্তপাত হয়। বেদনাদায়ক গাম্বল।

আরও পড়ুন –  শিশুর দাঁত উঠা

আর ১৮২ ঔষধ সেবন বিধি : প্রাপ্ত বয়স্করা জন্য ১৫ থেকে ২০ ফোঁটা, শিশুরা ৭ থেকে ১০ ফোঁটা ঔষধ ১/৪ কাপ পানিতে মিশিয়ে দিনে ৩ বার অথবা রেজিষ্টার্ড হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসকের পরামর্শে সেবন করতে হবে।
মন্তব্য :  আর ১৮২ ঔষধের আর ১ ব্যবহার করা অত্যন্ত কার্যকর হতে পারে। ইচিনেসিয়া মাদার টিংচার দিয়ে গার্গল করে, প্রতিদিন দুবার এক ঢোক পানিতে দশ ফোটা করে খেলেও অনেক উপকার পাওয়া যায়।
চিকিৎসকের কিছু পরারর্শ : ওষুধ খাওয়ার সময় মুখের কোনো তীব্র গন্ধ যেমন কফি, পেঁয়াজ, শিং, পুদিনা, কর্পূর, রসুন ইত্যাদি এড়িয়ে চলুন। খাবার/পানীয়/অন্য কোনো ওষুধ এবং অ্যালোপ্যাথিক ওষুধের মধ্যে অন্তত আধা ঘণ্টার ব্যবধান রাখুন। গর্ববতী নারীরা ঔষধ সেবনের পূর্বে রেজিষ্টার্ড হোমিওপ্যাথি চিকিৎসকের সঙ্গে পরামর্শ করুণ।

আরও পড়ুন –  র‌্যাক্স নং – ৬৫ (দাঁত ব্যাথা)

শর্তাবলী : কম্বেনেশন হোমিওপ্যাথি ঔষধগুলি সাধারণত লক্ষণে উপর ভিভি করে ব্যবহার করা হয়। মনে রাখবেন হোমিওপ্যাথিক সদৃশ্য বিধান একটি চিকিৎসা ব্যবস্থা, বেশি লক্ষণে সঙ্গে মিলিলে তবেই ব্যবহার যোগ্য। তা না হলে অবস্থার উপর নির্ভর করে ফলাফল পরিবর্তিত হতে পারে।
পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া : এই ঔষধ সেবনে কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই।
সতর্কতা : গর্ভবতী মা অথবা দুগ্ধদানকারী মায়েরা ঔষধ সেবনের পূর্বে রেজিষ্টার্ড হোমিওপ্যাথি চিকিৎসকের পরামর্শে ঔষধ সেবন করা উত্তম।

ঔষধ সংরক্ষণ :  সুস্ক ও শীতল স্থানে সুগন্ধ-দুগন্ধ, আলো-বাতাস থেকে দুরে, শিশুদের নাগালের বাহিরে রাখুন।

আরোগ্য হোমিও হল এডমিন : আজকের আলোচনা এখানেই শেষ করলাম। আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছেন। নতুন কোনো স্বাস্থ্য টিপস নিয়ে হাজির হবো অন্য দিন। এই ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তথ্যগুলো কেবল স্বাস্থ্য সেবা সম্বন্ধে জ্ঞান আহরণের জন্য। অনুগ্রহ করে রেজিষ্টার্ড হোমিওপ্যাথিক পরামর্শ নিয়ে ওষুধ সেবন করুন। চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ সেবনে আপনার শারীরিক বা মানসিক ক্ষতি হতে পারে। প্রয়োজনে, আমাদের সহযোগিতা নিন। এই ওয়েব সাইটটি কে কোন জেলা বা দেশ থেকে দেখছেন “লাইক – কমেন্ট” করে জানিয়ে দিন। যদি ভালো লাগে তবে “শেয়ার” করে আপনার বন্ধুদের জানিয়ে দিন। সবাই সুস্থ্য, সুন্দর ও ভালো থাকুন। নিজের প্রতি যত্নবান হউন এবং সাবধানে থাকুন। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।

 

 

 


এ জাতীয় আরো খবর.......
Design & Developed BY FlameDev