শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ০৭:৪৬ অপরাহ্ন

আর ৮৩ (খাদ্য এলার্জি)

আরোগ্য হোমিও হল / ৯৭ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশ কালঃ সোমবার, ১ এপ্রিল, ২০২৪, ৬:০৪ অপরাহ্ন

Dr. Reckeweg R 84/  আর ৮৩ (খাদ্য এলার্জি)
R83 (food allergy)
আরোগ্য হোমিও হল এ সবাইকে স্বাগতম। আশা করছি, সবাই ভালো আছেন। আজ আমরা এখানে আলোচনা করবো “ আর ৮৩ (খাদ্য এলার্জি)” কম্বিনেশন হোমিওপ্যাথি ঔষধ নিয়ে আজকে জনবো, এটা সবার জানা জরুরী! তো আর কথা নয় – সরাসরি মূল আলোচনায়।
প্রস্তুত প্রণালী : Dr. Reckeweg R 84/  জার্মান হোমিওপ্যাথিক ঔষধ।
ব্যবহার : আর ৮৩ ড্রপটি খাদ্য অ্যালার্জির লক্ষণগুলির জন্য নির্দেশিত। এতে অ্যাড্রেনালিনাম, হেপার এবং হিস্টামিনামের মতো গুরুত্বপূর্ণ উপাদান রয়েছে যা খাবারের অ্যালার্জি কমায়তে সহায়তা করে।
আর ৮৩ ড্রপটির বিশেষ লক্ষণ :
(১) শরীরের অ্যালার্জি সংবেদনশীলতা বা প্রবণতা হ্রাস করে।
(২) অ্যালার্জির উপসর্গগুলির উপর সরাসরি হরমোনের প্রভাব ফেলে।
(৩) অ্যান্টিহিস্টামাইন প্রভাবের জন্য গ্রন্থিগত হস্তক্ষেপ করে।
আর ৮৩ ড্রপস  খাবারের অ্যালার্জির লক্ষণ হল – মুখের মধ্যে খিঁচুনি অথবা চুলকানি, চুলকানি লাল ফুসকুড়ি (আববাত)। অন্যান্য লক্ষণগুলির মধ্যে রয়েছে ঠোঁট, মুখ, জিহ্বা ও গলা অথবা শরীরের অন্যান্য অংশ ফুলে যাওয়া অন্তর্ভুক্ত থাকতে পারে। শ্বাসকষ্ট, নাক বন্ধ অথবা শ্বাসকষ্ট। পেটে ব্যথা, ডায়রিয়া, বমি বমি ভাব বা বমি হওয়া ইত্যাদি।
আর ৮৩ ড্রপটির খাবারে এলার্জি : খাবারে অ্যালার্জির লক্ষণগুলি হল শ্বাসকষ্ট, রক্ত চলাচল বন্ধ হয়ে যাওয়া, গিলতে সমস্যা, দুর্বল নাড়ি, নিম্ন রক্তচাপ, ফ্যাকাশে ত্বক, মাথা ঘোরা, বমি, বমি বমি ভাব, ডায়রিয়া এবং পেটে ব্যথা। গবেষনায় দেখা গেছে  প্রায় ৪ থেকে ৬ শতাংশ শিশু এবং ৪ শতাংশ প্রাপ্তবয়স্ক ব্যাক্তিরা খাদ্য অ্যালার্জিতে আক্রান্ত হয়। খাদ্যে অ্যালার্জি দেখা দেয় যখন রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা খাবারের পর পদার্থগুলি প্রতি প্রতিক্রিয়া দেখায় বা এটিকে সাধারণভাবে খাবারের প্রতি অস্বাভাবিক প্রতিরোধ ক্ষমতা বলা যেতে পারে। অ্যালার্জির প্রতিক্রিয়ার লক্ষণগুলি হল গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল ট্র্যাক্ট, ত্বক, কার্ডিওভাসকুলার সিস্টেম এবং শ্বাসযন্ত্রের ট্র্যাক্টকে জড়িত করতে পারে। পরিবেশগত অথবা বংশগত কারণগুলি খাদ্য অ্যালার্জির বিকাশে গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে। বেশিরভাগ অ্যালার্জির প্রতিক্রিয়ার জন্য দায়ী তবে সাধারণ খাবারের মধ্যে রয়েছে – চিনাবাদাম, মাছ, ডিম, গরুর দুধ, গম, গাছের বাদাম, সয়া ও শেলফিশ।

আরও পড়ুন –    আর ৮৪ (ইনহেলেন্ট এলার্জি)

খবারে এলার্জি চিকিৎসা অথবা আপনার কি করা উচিত?
খবারে এলার্জি জরুরী পরিস্থিতিতে, দ্রুত এবং যথাযথ ভাবে কাজ করা গুরুত্বপূর্ণ। খাদ্য এলার্জি প্রতিক্রিয়ার সবচেয়ে গুরুতর রূপকে বলা হয় অ্যানাফিল্যাক্সিস, যা জীবন-হুমকির মধ্যে পড়তে পারে। এখানে জরুরী চিকিৎসার জন্য নেওয়া পদক্ষেপগুলি রয়েছে যেমন –
(১) লক্ষণগুলি চিনুন: অ্যানাফিল্যাক্সিস বিভিন্ন লক্ষণের কারণ হতে পারে যা দ্রুত বৃদ্ধি পেতে পারে। এর মধ্যে রয়েছে – শ্বাসকষ্ট, শ্বাস নিতে অসুবিধা, মুখ অথবা গলা ফুলে যাওয়া, আমবাত বা ত্বকে ফুসকুড়ি, মাথা ঘোরা, দ্রুত নাড়ি, বমি বমি ভাব, বমি বা চেতনা হ্রাস এর মধ্যে অন্তর্ভুক্ত থাকতে পারে।
(২)  জরুরী পরিষেবার সাহায্য নিন : আপনার যদি অ্যানাফিল্যাক্সিস সন্দেহ হয় অথবা কেউ গুরুতর অ্যালার্জির লক্ষণগুলি অনুভব করছেন, অবিলম্বে জরুরি চিকিৎসা সহায়তা নিন।
(৩) এপিনেফ্রিন পরিচালনা করুন : যদি ব্যক্তিকে একটি এপিনেফ্রাইন অটো-ইনজেক্টর (যেমন একটি এপিপেন) নির্ধারণ করা হয়, তাহলে তাকে অবিলম্বে এটি ব্যবহার করতে সহায়তা করতে হবে। অটো-ইনজেক্টর সাধারণত ব্যক্তির উরুর বিরুদ্ধে দৃঢ়ভাবে টিপে এবং কয়েক সেকেন্ডের জন্য এটিকে ধরে রাখার দ্বারা পরিচালিত হয়। ঔই ব্যক্তিকে শান্ত বা শান্ত থাকতে উৎসাহিত করুন।
(৪) একটি আরামদায়ক অবস্থান সন্ধান করুন : ঔই ব্যক্তিকে আরামদায়ক অবস্থানে সহায়তা করুন। সাধারণত, তাদের পা উঁচু করে তাদের পিঠের উপর শুয়ে থাকার পরামর্শ দিন, যদি না তারা বমি বা শ্বাস নিতে অসুবিধা হয়, এই ক্ষেত্রে তাদের সোজা হয়ে অথবা বসতে থাকতে পারে।
(৫) আঁটসাঁট পোশাক ঢিলা করুন : রোগীর শ্বাস-প্রশ্বাসে সাহায্য করার জন্য, বিশেষ করে ঘাড়ের চারপাশে যে কোনও আঁটসাঁট পোশাক আলগা করুণ।
(৭) ব্যক্তির অত্যাবশ্যক লক্ষণগুলি পর্যবেক্ষণ করুন : রোগীর শ্বাস-প্রশ্বাস, স্পন্দন এবং চেতনার স্তর পর্যবেক্ষণ করুন৷ যদি তারা প্রতিক্রিয়াহীন হয়ে যায় অথবা তাদের শ্বাস বা হৃদস্পন্দন বন্ধ হয়ে যায়, কার্ডিওপালমোনারি রিসাসিটেশন (সিপিআর) প্রয়োজন হতে পারে।
(৮) অতিরিক্ত সহায়তা অফার করুন : যদি পাওয়া যায় তবে লক্ষণগুলি উপশম করতে সহায়তা করার জন্য ব্যক্তিকে অ্যান্টিহিস্টামাইন দিন। চিকিৎসা সহায়তা না আসা পর্যন্ত ব্যক্তিকে আশ্বস্ত করা অথবা সান্ত্বনা দেওয়াও গুরুত্বপূর্ণ দায়িত্ব।

আরও পড়ুন –   আর ১৮৩ (অ্যান্টি অ্যালার্জি) 

মনে রাখবেন, এই পদক্ষেপগুলি হল একটি সাধারণ নির্দেশিকা, এবং স্বাস্থ্যসেবা পেশাদারদের দ্বারা প্রদত্ত নির্দিষ্ট নির্দেশাবলী অনুসরণ করা অথবা একজন ব্যক্তির জরুরী কর্ম পরিকল্পনায় উল্লেখ করা অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। যদি এপিনেফ্রিন ব্যবহার করার পরে যদি উন্নতি হয়, তবে অবিলম্বে চিকিৎসার পরামর্শ নেওয়া অপরিহার্য কারণ অ্যানাফিল্যাক্সিসের একটি বিলম্বিত সেকেন্ডারি ফেজ হতে পারে।
আর ৮৩ ড্রপসটির মুল উপাদান কম্বিরেনশন :
(ক) অ্যাড্রেনালিনাম D5 (Adrenalinum D5)।
(খ) কফিয়া D6, D12, D30 (Coffea D6, D12, D30)।
(গ) ফেক্স মেডিসিনাইলিস (Faex Medicinailis D6,D12, D30)।
(ঘ) হিপার (Hepar D6)।
(ঙ) হিস্টামিনাম (Histaminum D30)।
(চ) ল্যাক D6, D1, D30 (Lac D6, D1, D30)।
(ছ) স্যাকারাম অফিসিয়াল (Saccharum Officinale D6, D12, D30)।
(জ) সোলানাম লাইকোপারসিকাম (Solanum Lycopersicum D6, D12, D30)।

আরও পড়ুন –   এইচ আর – ৮৪ (ত্বকের অ্যালার্জিতে কার্যকর)

আর ৮৩ ড্রপসটির কার্যকারিতা :
(১) কফিয়া (Coffea), ফেক্স মেডিসিনিস (Faex Medicinailis),  ল্যাক (Lac), স্যাকারাম অফিসিয়াল(Saccharum Officinale),  সোলানাম লাইকোপারসিকাম (Solanum Lycopersicum) : এই উপাদানগুলি অ্যালার্জির প্রতিক্রিয়া কমাতে অ্যান্টিজেনিক্যালি ডিসেনসিটি-ভাইজেশন থেরাপি প্রদান করে।
(২) অ্যাড্রেনালিনাম (Adrenalinum) : এটির অ্যালার্জির লক্ষণগুলির বিরুদ্ধে হরমোনের প্রভাব রয়েছে। অ্যালার্জি শরীরের হরমোনের প্রতি সাড়া দেয়, উদাহরণস্বরূপ ইস্ট্রোজেন ভর কোষের রিসেপ্টরের সাথে আবদ্ধ হয় এবং হিস্টামিন আউটপুটে সরাসরি প্রভাব বিস্তার করে।
(৩) হিপার (Hepar) : এটি অ্যান্টিহিস্টামিন প্রভাবে গ্রন্থিগুলিকে উদ্দীপিত করে। অন্তঃসত্ত্বা নিঃসরণগুলি অ্যালার্জির প্রতিক্রিয়াকে প্রভাবিত করে ও  লিম্ফ নোডগুলি একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।
(৪) হিস্টামিনাম (Histaminum) : অ্যান্টিহিস্টামিন প্রভাবের জন্য সর্বোত্তম অ্যান্টিঅ্যালার্জিক প্রতিক্রিয়া দেখায়।
অ্যাড্রেনালিনাম ((Adrenalinum) :  এটির অ্যালার্জির লক্ষণগুলির বিরুদ্ধে সরাসরি হরমোনের প্রভাব রয়েছে। অ্যালার্জি শরীরের হরমোনের প্রতি সাড়া দেয়, উদাহরণস্বরূপ ইস্ট্রোজেন ভর কোষের রিসেপ্টরের সাথে আবদ্ধ হয় এবং হিস্টামিন আউটপুটে সরাসরি প্রভাব ফেলে।
হেপার (Hepar) : এটি অ্যান্টিহিস্টামিন প্রভাবের জন্য গ্রন্থিগুলিকে উদ্দীপিত করে। অন্তঃসত্ত্বা নিঃসরণগুলি অ্যালার্জির প্রতিক্রিয়াকে প্রভাবিত করে এবং লিম্ফ নোডগুলি একটি গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা পালন করে।

আরও পড়ুন –   এন – ৮৪ (এল্যার্জির সমস্যায় কার্যকর)

আর ৮৩ ঔষধ সেবন বিধি : প্রাপ্ত বয়স্করা জন্য ১৫ থেকে ২০ ফোঁটা, শিশুরা ৭ থেকে ১০ ফোঁটা ঔষধ ১/৪ কাপ পানিতে মিশিয়ে দিনে ৩ বার অথবা রেজিষ্টার্ড হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসকের পরামর্শে সেবন করতে হবে।
চিকিৎসকের কিছু পরারর্শ : ওষুধ খাওয়ার সময় মুখের কোনো তীব্র গন্ধ যেমন কফি, পেঁয়াজ, শিং, পুদিনা, কর্পূর, রসুন ইত্যাদি এড়িয়ে চলুন। খাবার/পানীয়/অন্য কোনো ওষুধ এবং অ্যালোপ্যাথিক ওষুধের মধ্যে অন্তত আধা ঘণ্টার ব্যবধান রাখুন।
সতর্কতা : গর্ভবতী মা অথবা দুগ্ধদানকারী মায়েরা ঔষধ সেবনের পূর্বে রেজিষ্টার্ড হোমিওপ্যাথি চিকিৎসকের পরামর্শে ঔষধ সেবন করা উত্তম।
শর্তাবলী : কম্বেনেশন হোমিওপ্যাথি ঔষধগুলি সাধারণত লক্ষণে উপর ভিভি করে ব্যবহার করা হয়। মনে রাখবেন হোমিওপ্যাথিক সদৃশ্য বিধান একটি চিকিৎসা ব্যবস্থা, বেশি লক্ষণে সঙ্গে মিলিলে তবেই ব্যবহার যোগ্য। তা না হলে অবস্থার উপর নির্ভর করে ফলাফল পরিবর্তিত হতে পারে।
পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া : হোমিওপ্যাথি সর্বোত্তম চিকিৎসা প্রদান করে কারণ এটি নিরাপদ এবং পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া মুক্ত।
ঔষধ সংরক্ষণ : সুস্ক ও শীতল স্থানে সুগন্ধ-দুগন্ধ, আলো-বাতাস থেকে দুরে, শিশুদের নাগালের বাহিরে রাখুন।
আরোগ্য হোমিও হল এডমিন : আজকের আলোচনা এখানেই শেষ করলাম। আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছেন। নতুন কোনো স্বাস্থ্য টিপস নিয়ে হাজির হবো অন্য দিন। এই ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তথ্যগুলো কেবল স্বাস্থ্য সেবা সম্বন্ধে জ্ঞান আহরণের জন্য। অনুগ্রহ করে রেজিষ্টার্ড হোমিওপ্যাথিক পরামর্শ নিয়ে ওষুধ সেবন করুন। চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ সেবনে আপনার শারীরিক বা মানসিক ক্ষতি হতে পারে। প্রয়োজনে, আমাদের সহযোগিতা নিন।  এই ওয়েব সাইটটি কে কোন জেলা বা দেশ থেকে দেখছেন “লাইক – কমেন্ট” করে জানিয়ে দিন। যদি ভালো লাগে তবে “শেয়ার” করে আপনার বন্ধুদের জানিয়ে দিন।  সবাই সুস্থ্য, সুন্দর ও ভালো থাকুন। নিজের প্রতি যত্নবান হউন এবং সাবধানে থাকুন।  আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।


এ জাতীয় আরো খবর.......
Design & Developed BY FlameDev