শনিবার, ১৩ এপ্রিল ২০২৪, ০৩:০২ অপরাহ্ন

ব্যারাইটা মিউরিয়েটিকাম (৩X-৬X)

আরোগ্য হোমিও হল / ২২৭ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশ কালঃ রবিবার, ২ জুলাই, ২০২৩, ৭:২৯ পূর্বাহ্ন
ব্যারাইটা মিউরিয়েটিকাম (৩X-৬X)

ব্যারাইটা মিউরিয়েটিকাম (৩X-৬X)

Baryta Muriaticum (3X-6X)

ক্যাটাগরি : উইলমার শোয়াবে ইন্ডিয়া ব্যারাইটা মিউরিয়েটিকাম (৩X-৬X) হোমিওপ্যাথিক ঔষধ।

ব্যারাইটা মিউরিয়েটিকাম (৩X-৬X) ঔষধের ব্যবহার : মানসিক এবং শারীরিক পর্যায়ে ধীর বিকাশ, স্ট্রোক এবং একজিমা, খিঁচুনি, অঙ্গ-প্রত্যঙ্গের অত্যধিক অস্থিরতা, পর্যায়ক্রমে খিঁচুনির আক্রমণ। নিম্ন গ্যাস্ট্রো অন্ত্রের ট্র্যাক্টের উপর ক্রিয়া যেখানে মলদ্বার জড়িত, হাঁটার পরে জয়েন্টের শক্ত, দুর্বলতা, খিঁচুনি সহ বৈদ্যুতিক শক এর মতো যন্ত্রণা । ডইঈ (শ্বেত রক্তকণিকা) বৃদ্ধি ও ইউরিক অ্যাসিডের বৃদ্ধি । যে সব শিশু নাক দিয়ে কথা বলে, কিন্ত তারা মুখ খোলা রাখে। বসন্ত এবং শরতকালে টনসিলাইটিস দেখা দেয়।

ব্যারাইটা মিউরিয়েটিকাম (৩X-৬X) ঔষধের লক্ষণ : শিশুদের কৃমি থেকে খিঁচুনি, শিশুরা কোন কিছুতেই মনোনিবেশ করতে পারে না, স্মৃতিশক্তি দুর্বলতাসহ নিস্তেজতা।টনসিটিলাইটিস, অণ্ডকোষ, টিনিটাস, পায়ের দুর্বলতা সহ পেশী শক্ত ভাব।প্যারালাইসিস সহ শরীরের বরফের মতো ঠান্ড।

ব্যারাইটা মিউরিয়েটিকাম (৩X-৬X) ঔষধের গুরুত্বপূর্ণ লক্ষণ : বদহজম, মাথাব্যথা, বধিরতা, বমি এবং পেটে জ্বালা সহ খিঁচুনি টনসিলের বৃদ্ধি যে ব্যক্তিদের অ্যানিউরিজম (যেখানে একটি ধমনী বেলুনের মতো প্রসারিত হয়) যে সব শিশু বিকাশে দেরি হয় সেই সাথে বয়স্ক ব্যক্তিদের মানসিক প্রতিবন্ধকতা, অক্ষমতা। স্নায়বিক ব্যাধিগুলির সাথে যুক্ত লক্ষণ গুলি, যেমন- যা প্রতিদিনই ঘটতে পারে, অস্থিরতা, অনমনীয়তা এবং মানসিক প্রতিক্রিয়া হ্রাস। অণ্ডকোষের ফোলা ও বেদনা, শক্ত, জরাগ্রস্ত গ্রন্থি, সম্ভবত সার্ভিকাল গ্রন্থি, সেই সঙ্গে গলা ব্যথা, টনসিলাইটিস। মাথা, ঘাড়, পেট এবং উরুতে ছোট চুলকানি বিস্ফোরণ।

 

ব্যারাইটা মিউরিয়েটিকাম (৩X-৬X) ঔষধ সেবন বিধি : ট্যাবলেটগুলি মুখে রাখুন এবং তাদের জিহ্বার নীচে দ্রবীভূত করতে দিন। প্রাপ্তবয়স্করা ও কিশোর-কিশোরীরা (১২ বছর বা তার চেয়ে বেশি বয়সী) ২টি ট্যাবলেট, প্রতিদিন সাকাল- রাত (দুইবার) অথবা রেজিষ্টার্ড চিকিৎসকের পরামর্শ অনুযায়ী সেবন করুণ। দীর্ঘস্থায়ী সমাধানের ক্ষেত্রে প্রতিদিন এক থেকে দুই বার সেবন করতে হবে। লক্ষণগুলির উন্নতির সাথে সাথে ডোজ কম করুন। যদি ঔষধ সেবন করেও উপশম না হয় তবে একজন বিশেষজ্ঞের সাথে পরামর্শ করুন।

ব্যারাইটা মিউরিয়েটিকাম (৩X-৬X) ঔষধের পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া : অ্যালোপ্যাথি অথবা আয়ুর্বেদিক বা অন্যান্য ঔষধ থাকলেও হোমিওপ্যাথিক ট্যাবলেটগুলি সেবন করা নিরাপদ। হোমিওপ্যাথিক ওষুধগুলি অন্যান্য ওষুধের ক্রিয়ায় হস্তক্ষেপ করে না। এটি নিরাপদ এবং কোনো পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই।

ব্যারাইটা মিউরিয়েটিকাম (৩X-৬X) ঔষধের সতর্কতা : আপনি যখন ওষুধ খান তখন খাবারের ১৫ মিনিট আগে বা ১৫ মিনিটের পরে ঔষধ খাওয়া উত্তম।

বিশেষ দ্রষ্টব্য : ব্যারাইটা মিউরিয়েটিকাম (৩X-৬X) ঔষধ গর্ভবতী বা বুকের দুধ বাচ্চা থাকলে ঔষধ খাওয়ার আগে হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসককে পরামর্শে সেবন করুন। তবে যে কোন ঔষধ নিজে খাওয়া ঠিক নয়। এতে করে শারীরিক ও মানুষিক ক্ষতি হতে পারে। সব সময় একজন রেজিষ্টার্ড চিকিৎসকের পরামর্শে ঔষধ সেবন করুণ।

বাধা নিষেধ : ব্যারাইটা মিউরিয়েটিকাম (৩X-৬X) ওষুধ খাওয়ার সময় তামাক খাওয়া বা অ্যালকোহল পান করা ঠিক নয়।

ব্যারাইটা মিউরিয়েটিকাম (৩X-৬X) ঔষধ সংরক্ষণ : আলো-বাতাস, সুগন্ধ-দগন্ধ থেকে দুরে শীতল ও শুস্কস্থানে, শিশুদের নাগাল এর বাইরে রাখুন।

 

আজকের আলোচনা এখানেই শেষ করলাম। আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছেন। নতুন কোনো স্বাস্থ্য টিপস নিয়ে হাজির হবো অন্য দিন। সবাই সুস্থ্য, সুন্দর ও ভালো থাকুন। নিজের প্রতি যত্নবান হউন এবং সাবধানে থাকুন। যদি এই পোস্টটি আপনার ভালো লাগে এবং প্রয়োজনীয় মনে হয় তবে অনুগ্রহ করে আপনার বন্ধুদের সাথে শেয়ার করতে ভুলবেন না যেন।

আরোগ্য হোমিও হল এডমিন : এই ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তথ্যগুলো কেবল স্বাস্থ্য সেবা সম্বন্ধে জ্ঞান আহরণের জন্য। অনুগ্রহ করে রেজিষ্টার্ড হোমিওপ্যাথিক পরামর্শ নিয়ে ওষুধ সেবন করুন। চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ সেবনে আপনার শারীরিক বা মানসিক ক্ষতি হতে পারে। প্রয়োজনে, আমাদের সহযোগিতা নিন। এই ওয়েব সাইটটি কে কোন জেলা বা দেশ থেকে দেখছেন “লাইক – কমেন্ট” করে জানিয়ে দিন। যদি ভালো লাগে তবে “শেয়ার” করে আপনার বন্ধুদের জানিয়ে দিন। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।

 


এ জাতীয় আরো খবর.......
Design & Developed BY FlameDev