শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ০৬:১১ অপরাহ্ন

অ্যাডাল-৫৫ (ঘাড় ও পিঠে ব্যথা)

আরোগ্য হোমিও হল / ১৩৬ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশ কালঃ মঙ্গলবার, ২০ ফেব্রুয়ারী, ২০২৪, ৩:২১ অপরাহ্ন
অ্যাডেল নং – ৫৫ (ঘাড় ও পিঠে ব্যথা)

Adele – 55 (Neck & Back Pain)।

অ্যাডাল – ৫৫ (ঘাড় ও পিঠে ব্যথা)

আরোগ্য হোমিও হল এ সবাইকে স্বাগতম। আশা করছি, সবাই ভালো আছেন। আজ আমরা এখানে আলোচনা করবো “অ্যাডাল – ৫৫ (ঘাড় ও পিঠে ব্যথা)” ম্বনেশন হোমিওপ্যাথি ঔষধ নিয়ে আজকে জনবো, এটা সবার জানা জরুরী! তো আর কথা নয় – সরাসরি মূল আলোচনায়।

প্রস্তুত প্রণালী :  জার্মান কম্বিনেশন হোমিওপ্যাথি ঔষধ।

ব্যবহার : শক্ত হওয়া ও ঘাড় এবং পিঠে ব্যথা, কঠোরতা স্পন্ডাইলাইটিস সম্পর্কিত সমস্যায় ব্যবহার হয়।

অ্যাডাল নং – ৫৫ ঔষধের ইঙ্গিত : স্পন্ডিলাইটিসের উপসর্গগুলি থেকে মুক্তির জন্য বিশেষ করে সার্ভিকাল, অসাড়তা, ঝিঁঝিঁ পোকা, ভার্টিগো, কানের আওয়াজ, বমি ও বমি ভাব এবং মাথা ঘোরা ইত্যাদি।

আরও পড়ুন – এইচ আর – ২০ (সায়াটিকার চিকিৎসায় কার্যকর)

অ্যাডাল নং – ৫৫ ঔষধের লক্ষণ : সার্ভিকাল স্পন্ডাইলোসিস হল বয়স-সম্পর্কিত যা আপনার ঘাড়ের মেরুদণ্ডের ডিস্কগুলিকে প্রভাবিত করে। ডিস্কগুলি ডিহাইড্রেট ও সঙ্কুচিত হওয়ার সাথে সাথে অস্টিওআর্থারাইটিসের উপসর্গগুলি বিকাশ লাভ করে, যার মধ্যে হাড়ের প্রান্ত বরাবর যেখানে হাড়ের (হাড়ের স্পার) রয়েছে। সার্ভিকাল স্পন্ডিলোসিসের সবচেয়ে বড় ঝুঁকির কারণ হল বার্ধক্য। আপনার বয়সের সাথে ঘাড়ের জয়েন্টগুলিতে পরিবর্তনের ফলে সার্ভিকাল স্পন্ডাইলোসিস প্রায়শই বিকাশ লাভ করে। ডিস্ক হার্নিয়েশন, ডিহাইড্রেশন ও হাড়ের স্পার্স সবই বার্ধক্যের কারণ। বার্ধক্য ব্যতীত অন্যান্য কারণগুলি আপনার সার্ভিকাল স্পন্ডিলোসিসেরও ঝুঁকি বাড়াতে পারে।

সার্ভিকাল ব্যথা সাধারণত অনেক কারণে হতে পারে। এর প্রধান কারণ হল সার্ভিকাল অঞ্চলের স্নায়ুগুলি সংকোচন বা কোন অন্তর্নিহিত হাড়ের রোগ যা ব্যথার দিকে ধাবিত হয়। সার্ভিকাল ব্যথা রোগের উপর নির্ভর করে এই সমস্যা দেখা যেতে পারে যেমন- মাথাব্যথা, ঘাড় শক্ত হওয়া, মায়ালজিয়া, দুর্বলতাও থাকতে পারে। অনেক সময় অতিরিক্ত কাজ ও দুশ্চিন্তার কারণেও একজন ব্যক্তি সার্ভিকাল ব্যথায় ভুগতে পারেন। এটি সাধারণত কম্পিউটারে কাজ করা লোকেদের মধ্যে ঘটতে পারে।

আরও পড়ুন – এইচ আর – ৬৭ (কাঁধের জয়েন্টের ব্যথায় কার্যকর)

অ্যাডাল নং – ৫৫ (হাবিফ্যাক) কম্বিনেশন ঔষধের মিশ্রণ :
(১) ক্যালমিয়া ল্যাটিফোলিয়া 8x (Kalmia Latifolia 8x)।
(২) গ্লেকোমা হেডেরেসিয়া ডিলিউশন 6x (Glechoma Hederacea Dilution 6x)।
(৩) ডালকামারা (Dulcamara 8x)।
(৪) ব্রায়োনিয়া অ্যালবা 6x (Bryonia Alb 6x)।
(৫) সিমিসিফিউগা রেসিমোসা 4x (Cimicfuga Recemosa 4x)।
(৬) রুটা গ্রেভোলেন্স 10x (Ruta Graveolens 10x)।
(৭) রুস টক্স 8x (Rhus Tox 8x)।
(৮) হেলিবোরাস নাইজার 10x (Helleborus Niger 10x)।

আরও পড়ুন – এইচ আর – ৫৬  (হাড়ের চিকিৎসায় কার্যকর)

অ্যাডাল নং – ৫৫ (হাবিফ্যাক) কম্বিনেশন ঔষধেরকার্যকারিতা :

(ক) ক্যালমিয়া ল্যাটিফোলিয়া (Kalmia Latifolia) : ক্যালমিয়ার পিঠে ও ঘাড়ের ব্যথার বিরুদ্ধে কাজ করে যা হাত-পায়ের অংশে ছড়িয়ে পড়ে এবং রোগী পরিশ্রম করলে ব্যথা আরও বৃদ্ধি পায় ।

(খ) গ্লেকোমা হেডেরেসিয়া ডিলিউশন (Glechoma Hederacea Dilution ) : গ্লেকোমা একটি প্রদাহ বিরোধী যা অ্যান্টিফ্লোজিস্টিক এবং বিপাককে উদ্দীপিত করে।

(গ) ডালকামারা (Dulcamara ) : ডালকামারা সাধানত আঘাত করা, ঘাড়ের অংশে শক্ত হওয়া, র‌্যাকিং এবং ছিঁড়ে যাওয়া, দীর্ঘক্ষণ নুয়ে থাকার পরে ব্যথা বিশেষত ঠান্ডা এবং ভেজা ও স্যাঁতসেঁতে আবহাওয়ায় চলাফেরার ফলে কিছুটা রোগীর উপশম হয়। ঠাণ্ডার সংস্পর্শে বিশেষত পিঠে এবং কটিদেশে পেশীগুলির শক্ত ভাব, অসাড়তা এবং ব্যথা।

(ঘ) ব্রায়োনিয়া অ্যালবা 6x (Bryonia Alb 6x) : ব্রায়োনিয়া সাধারণত ব্যথার বিরুদ্ধে কাজ করে, ইহার বিশেষত্ব বিশ্রামে সময় ব্যথা ভাল হয়। এখানে বলা যেতে পারে ফোকাসে ব্যথা হল যা ঘাড় বা পিঠের ছোট অংশে হয় যা নড়াচড়া করার সময় বৃদ্ধি পায়। এটি সার্ভিকাল মেরুদণ্ডে সংকোচনের মতো অনুভূত হয়। ঘাড়ে ব্যথা, সার্ভিকাল মেরুদণ্ডে সংকোচনের অনুভূতি এবং ঘাড়ের অংশে শক্ত হওয়াও ইহার উপসর্গ।

(ঙ) সিমিসিফিউগা রেসিমোসা 4x (Cimicfuga Recemosa 4x) : ঘাড়ে ব্যথা, সার্ভিকাল মেরুদণ্ডে সংকোচনের অনুভূতি ও ঘাড়ের অংশে শক্ত হওয়ার মতো উপসর্গগুলির বিরুদ্ধে কাজ করে।

আরও পড়ুন – এন – ১১ (রিউমেটিজম বাত ও গেটে বাত রোগে ড্রপস)

(চ) রুটা গ্রেভোলেন্স 10x (Ruta Graveolens 10x) : এটি জয়েন্টগুলির দুর্বলতার বিরুদ্ধে একটি নিয়ন্ত্রণকারী হিসাবে কাজ করে এবং অঙ্গের অসাড় দুর্বলতার বিরোধিতা করে। নাপ, পিঠ, কটি, লুম্বাগোতে ব্যথা করে যা সকালে ওঠার আগে আরও খারাপ হয়।

(ছ) রুস টক্স 8x (Rhus Tox 8x) : এর বিপরীতে, রুস টক্স লাম্বো-স্যাক্রাল অঞ্চলে ব্যথার বিরুদ্ধে কাজ করে যা চরম কঠোরতার সাথে থাকে। এখানে ব্যথা স্ট্রেন, অতিরিক্ত উত্তোলন এবং অতিরিক্ত ব্যবহারের কারণে হয় এবং এটি নড়াচড়া করলে বা শক্ত কিছুতে শুয়ে থাকলে ভাল হয় এবং বসে থাকলে আরও বৃদ্ধি হয়। স্নায়ু ও মেরুদণ্ডের স্নেহের জন্য উপযুক্ত, পেশী ও জয়েন্টগুলির দৃঢ়তার জন্য উপযুক্ত।।

(জ) হেলিবোরাস নাইজার (Helleborus Niger) : হেলেবোরাসের বৈশিষ্ট্য হলো ঘাড় শক্ত হওয়া, পক্ষাঘাত পর্যন্ত পেশী দুর্বলতা ও অঙ্গ-প্রত্যঙ্গে অসাড়তা ছড়িয়ে পড়ার মত ব্যথা করে।

আরও পড়ুন – র‌্যাক্স নং- ১২ (বাতব্যাথা)

অ্যাডাল নং- ৫৫ ঔষধ সেবন বিধি : প্রাপ্ত বয়স্করা জন্য ১৫ থেকে ২০ ফোঁটা, শিশুরা ৭ থেকে ১০ ফোঁটা ১/৪ কাপ পানিতে মিশিয়ে দিনে ৩ বার অথবা রেজিষ্টার্ড হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসকের পরামর্শে সেবন করতে হবে।

চিকিৎসকের কিছু পরারর্শ : ওষুধ খাওয়ার সময় মুখের কোনো তীব্র গন্ধ যেমন কফি, পেঁয়াজ, শিং, পুদিনা, কর্পূর, রসুন ইত্যাদি এড়িয়ে চলুন। খাবার/পানীয়/অন্য কোনো ওষুধ এবং অ্যালোপ্যাথিক ওষুধের মধ্যে অন্তত আধা ঘণ্টার ব্যবধান রাখুন।

শর্তাবলী : কম্বেনেশন হোমিওপ্যাথি ঔষধগুলি সাধারণত লক্ষণে উপর ভিভি করে ব্যবহার করা হয়। মনে রাখবেন হোমিওপ্যাথিক সদৃশ্য বিধান একটি চিকিৎসা ব্যবস্থা, বেশি লক্ষণে সঙ্গে মিলিলে তবেই ব্যবহার যোগ্য। তা না হলে অবস্থার উপর নির্ভর করে ফলাফল পরিবর্তিত হতে পারে।

পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া : এই ঔষধ সেবনে কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই।

সতর্কতা : সুস্ক ও শীতল স্থানে সুগন্ধ-দুগন্ধ, আলো-বাতাস থেকে দুরে, শিশুদের নাগালের বাহিরে রাখুন।

আরোগ্য হোমিও হল এডমিন : আজকের আলোচনা এখানেই শেষ করলাম। আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছেন। নতুন কোনো স্বাস্থ্য টিপস নিয়ে হাজির হবো অন্য দিন। এই ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তথ্যগুলো কেবল স্বাস্থ্য সেবা সম্বন্ধে জ্ঞান আহরণের জন্য। অনুগ্রহ করে রেজিষ্টার্ড হোমিওপ্যাথিক পরামর্শ নিয়ে ওষুধ সেবন করুন। চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ সেবনে আপনার শারীরিক বা মানসিক ক্ষতি হতে পারে। প্রয়োজনে, আমাদের সহযোগিতা নিন। এই ওয়েব সাইটটি কে কোন জেলা বা দেশ থেকে দেখছেন “লাইক – কমেন্ট” করে জানিয়ে দিন। যদি ভালো লাগে তবে “শেয়ার” করে আপনার বন্ধুদের জানিয়ে দিন। সবাই সুস্থ্য, সুন্দর ও ভালো থাকুন। নিজের প্রতি যত্নবান হউন এবং সাবধানে থাকুন। আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।


এ জাতীয় আরো খবর.......
Design & Developed BY FlameDev