শনিবার, ২০ জুলাই ২০২৪, ০৬:২৩ অপরাহ্ন

অ্যাডাল-১৬ (গ্যাস্ট্রাইটিস ও আলসার)

আরোগ্য হোমিও হল / ১০৬ বার দেখা হয়েছে
প্রকাশ কালঃ রবিবার, ১০ মার্চ, ২০২৪, ৬:২৪ অপরাহ্ন

Adel -16 (Gastritis and Ulcer)
অ্যাডেল-১৬ (গ্যাস্ট্রাইটিস ও আলসার)
আরোগ্য হোমিও হল এ সবাইকে স্বাগতম। আশা করছি, সবাই ভালো আছেন। আজ আমরা এখানে আলোচনা করবো  “অ্যাডাল -১৬ (গ্যাস্ট্রাইটিস ও আলসার)“ কম্বিনেশন হোমিওপ্যাথি ঔষধ নিয়ে আজকে জনবো, এটা সবার জানা জরুরী! তো আর কথা নয় – সরাসরি মূল আলোচনায়।
প্রস্তুত প্রণালী : জার্মান কম্বিনেশন হোমিওপ্যাথি ঔষধ।
ব্যবহার :  অ্যাডাল -১৬ ড্রপসটি গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল পেটের আলসারে ক্ষেত্রে ব্যবহার করা হয়।
অ্যাডাল – ১৬ ঔষধের লক্ষণ : এটি পাকস্থলীর আলসার এবং গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল রোগে কাজ করে। তীব্র গ্যাস্টুল ও দীর্ঘস্থায়ী গ্যাস্ট্রাইটিস, অ্যাপেন্ডিসাইটিস, স্নায়বিক পেট অবস্থা, বমি বমি ভাব, বমি ও খিঁচুনি। ড্রপগুলি তীব্র দীর্ঘস্থায়ী গ্যাস্ট্রাইটিস এবং আলসারেশন, বমি বমি ভাব, বমি খিঁচুনি ব্যথা, পেট ফাঁপা (খাদ্য খালে গ্যাস জমে), এবং শূন্যতা ডুওডেনাল (ছোট অন্ত্র বা ডুওডেনাম) সমস্যা গুলি দুর করে। পাচনতন্ত্রের ব্যাধি অথবা গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল রোগ বলতে পেট, ক্ষুদ্রান্ত্র এবং অন্যান্য অঙ্গগুলির সাথে জড়িত রোগগুলিকে বোঝানো হয়েছে। লক্ষণগুলির হলো বমি বমি ভাব, ব্যথা ও বমি, পেটে ব্যথা, পেট ফোলাভাব, ডায়রিয়া এবং কোষ্ঠকাঠিন্য। পরিপাকতন্ত্রের ব্যাঘাতের কারণ এই সসস্যগুলো হতে পারে কম আঁশযুক্ত খাবার, ব্যায়ামের অভাব, মানসিক চাপ, পাইলস ইত্যাদি।
পেটের আলসার ও অ্যাপেন্ডিসাইটিস : পেটের আলসার : গ্যাস্ট্রিক আলসার নামেও পরিচিত, এটি খোলা ঘা অথবা পাকস্থলীর আস্তরণে বিকশিত হয়। এগুলি ঘটে থাকে যখন পাকস্থলীর প্রতিরক্ষামূলক আবরণ ক্ষতিগ্রস্ত হয়, যা পেটের অ্যাসিডকে অন্তর্নিহিত টিস্যুগুলিকে ক্ষয় হয়ে যায়। পাকস্থলীর আলসারের সবচেয়ে সাধারণ কারণ হলো হেলিকোব্যাক্টর পাইলোরি (এইচ. পাইলোরি) নামক ব্যাকটেরিয়ার সংক্রমণ NSAIDS। অন্যান্য কারণ যা পেটের আলসারের বিকাশে অবদান রাখে । সেটি হলো দীর্ঘমেয়াদী ননস্টেরয়েডাল অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটরি ড্রাগ যেমন – অ্যাসপিরিন অথবা আইবুপ্রোফেন, অত্যধিক অ্যালকোহল সেবন, ধূমপান ও মানসিক চাপ।

আরও পড়ুন –  বায়ো কম্বিনেশন ২৫ (অম্লতা, পেট ফাঁপা ও বদহজম)

পেটের আলসার : একটি সাধারণ গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল ব্যাধি যা পেটের আস্তরণে পাওয়া বেদনাদায়ক ঘা। লক্ষণগুলির হলো শরীরের ওজন হ্রাস, পেটে নিস্তেজ ব্যথা, বমি ভাব, বমি, ফোলাভাব, বুকজ্বালা ইত্যাদি।
পেটের আলসারের লক্ষণগুলি পরিবর্তিত হতে পারে তবে সাধারণত এগুলো অন্তর্ভুক্ত থাকে।
(ক) পেটে ব্যথা: এটি সাধারণত একটি জ্বলন্ত অথবা কুঁচকানো ব্যথা যা আসে এবং যেতে পারে এবং সাধারণত উপরেই পেটে অনুভূত হয়।
(খ) বমি বমি ভাব অথবা বমি হওয়া।
(গ)  বদহজম।
(ঘ)  ক্ষুধা হ্রাস ও ওজন হ্রাস।
(ঙ)  গাঢ় অথভা কালো মল (রক্তের উপস্থিতি নির্দেশ করে)।
যদি আপনার সন্দেহ হয় যে আপনার পেটে আলসার হয়েছে, তাহলে রোগ নির্ণয় এবং চিকিৎসার জন্য চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া গুরুত্বপূর্ণ।

আরও পড়ুন –  এইচ আর -১৪ (গ্যাস্ট্রিক এবং আলসারের চিকিৎসায় কার্যকর)

অ্যাপেনডিসাইটিস : অ্যাপেন্ডিক্সের প্রদাহ, পেটের নীচের ডানদিকে অবস্থিত একটি ছোট, আঙুলের আকৃতির থলি। অ্যাপেন্ডিসাইটিসের সঠিক কারণ প্রায় অস্পষ্ট থাকে, তবে এটি ঘটতে থাকে সাধারণত যখন অ্যাপেন্ডিক্স ব্লক হয়ে যায়, শক্ত মলের একটি ছোট টুকরো, এটি ঘটে শরীরে সংক্রমণ প্রবেশের কারণে। যখন অ্যাপেনডিক্স ব্লক হয়ে যায় তখন ব্যাকটেরিয়া ভিতরে বৃদ্ধি পেতে পারে, যার ফলে ফুলে যাওয়া, প্রদাহ ও সংক্রমণ হতে পারে।
অ্যাপেন্ডিসাইটিসের লক্ষণগুলির মধ্যে অন্তর্ভুক্ত থাকতে পারে :
(১)  পেটে ব্যথা: ব্যথা সাধারণত পেটের বোতামের চারপাশে শুরু হয় ও তারপরে পেটের নীচের ডানদিকে আবার চলে যায়। ব্যথা তীব্র হতে পারে অথবা নড়াচড়া বা কাশির সাথে আরও খারাপ হতে পারে।
(২)  বমি বমি ভাব, বমি, ও ক্ষুধা হ্রাস।
(৩)  জ্বর এবং সর্দি।
(৪)  পেট ফোলা।
(৫)  মলত্যাগের পরিবর্তন, যেমন – ডায়রিয়া অথবা কোষ্ঠকাঠিন্য।
অ্যাপেন্ডিসাইটিসটি জরুরী হিসাবে বিবেচিত হয়, এবং আপনি যদি অ্যাপেনডিসাইটিসের আক্রান্তের লক্ষণগুলি অনুভব করেন তবে অবিলম্বে চিকিৎসকের পরামর্শ নেওয়া জরুরী।

আরও পড়ুন –   এইচ আর -৩৫ (বদহজম ও গ্যাসের চিকিৎসায়)

অ্যাডাল ১৬ গ্যাস্টুল ঔষধ কম্বিনেশন : 
(ক) আইরিস ভার্সিকলার 4x (lris versicolor 4x)।
(খ)  কোলচিকাম অটামনাল 6x (Colchicum autumnale 6x)।
(গ) কার্বো ভেজিটাবিলস 8x (Carbo vegetabilis 8x)।
(ঘ) ব্রায়োনিয়া ক্রেটিকা 4x (Bryonia cretica 4x)।
(ঙ) বেলিস পেরেনিস 2x (Bellis perennis 2x)।
(চ) পোটেনটিলা আনসারিন Ø (Potentilla anserine Ø)।
(ছ) স্ট্রাইচনোস ইগনাটি 12x (Strychnos ignatii 12x)।
(জ) হাইড্রাস্টিস ক্যানাডেনসিস 8x (Hydrastis Canadensis 8x)।

আরও পড়ুন –  কেন্ট ০৫ (গ্যাস্ট্রো-অন্ত্রের রোগে কার্যকর)

অ্যাডেল নং ১৬ গ্যাস্টুল ঔষধ কম্বিনেশন ঔষধের কার্যকারিতা :
(১) আইরিস ভার্সিকলার (lris versicolor ) :  এটি সমস্ত গ্যাস্ট্রো-হেপাটিক রোগের প্রতিকার। এটি পাকস্থলী এবং বমি (হাইপার এমেসিস) এর অ্যাসিড অবস্থা নিয়ন্ত্রণ করে। এটি অন্ত্রের অঙ্গগুলির কারণে মাইগ্রেন এবং অন্যান্য ধরণের মাথাব্যথারও গুরুত্বপূর্ণ প্রতিকার।
(২) কোলচিকাম অটামনেল  (Colchicum autumnale)  : গ্যাস্টারের প্রদাহ ও এন্ডোকার্ডিটিক অথবা পেরিকার্ডাইটিসের অবস্থা থেকে আসা ক্লান্তি দুর করে । এটি পেরিকার্ডাইটিস (পেরিকার্ডিয়ামের প্রদাহ), এন্ডোকার্ডাইটিস (এন্ডোকার্ডিয়ামের প্রদাহ)। এটি জয়েন্ট ও পেশীগুলিতে হাইপারসিড অবস্থা, রিউম্যাটিক (প্রদাহ এবং ব্যথা) নিয়ন্ত্রণ করে। এটি পেশী এবং জয়েন্টগুলিতে গাউট থেকে আসা ব্যথাও উপশম করে (ইউরিক অ্যাসিডের ত্রুটিযুক্ত বিপাক বাত সৃষ্টি করে)।
(৩) কার্বো ভেজিটাবিলিস (Carbo vegetabilis) :  গ্যাস্ট্রোইনটেস্টাইনাল যন্ত্রণার কারণে সৃষ্টি দুর্বলতার একটি দুর্দান্ত প্রতিকার। এটি সমস্ত উষ্ণায়ন প্রক্রিয়ার জন্য প্রয়োজনীয়। তা ছাড়া এটি খারাপ চর্মরোগের চিকিৎসা করে
(৪) ব্রায়োনিয়া ক্রেটিকা (Bryonia cretica) :  শরীরের সমস্ত শ্লেষ্মা ঝিল্লিতে শুষ্কতা এবং প্রদাহ, পাকস্থলীর ক্যাটারাস, অ্যাপেন্ডিক্স এবং লিভারের ব্যথার বিরুদ্ধে কাজ করে এবং এর উপরে এটি ফেটে যাওয়া মাথাব্যথা এবং ভারী জয়েন্টের ব্যথার চিকিৎসা করে।

আরও পড়ুন –  কেন্ট ৬৮ (হজমের উপশমে কার্যকর)

(৫) বেলিস পেরেনিস (Bellis perennis) :  পেটের গহ্বরের সমস্ত ধরণের ক্ষত, ক্যাটারহাল (মিউকাস মেমব্রেনের প্রদাহ) এটি অ্যাপেন্ডিক্সের স্ফীত অবস্থা এবং লিভার, গল ব্লাডার এবং পেটের চিকিত্সা করে। তবে আরও বিস্তৃত ক্ষেত্র রয়েছে, পেশী, জয়েন্ট ও হাড়ের আঘাতের পরিস্থিতি।
(৬) পোটেনটিলা আনসারিন (Potentilla anserine) :  এটি পাচনতন্ত্রের ব্যাধি যেমন – স্প্যাস্টিক (পেশীর খিঁচুনি সম্পর্কিত) অবস্থা, কোলাইটিস (কোলনের আস্তরণের প্রদাহ) মিউকোসা ও আলসার নিরাময় করে।
(৭) স্ট্রাইচনোস ইগনাটি  (Strychnos ignatii) :  ক্রিয়ামূলক ব্যাঘাত নিয়ন্ত্রণ ও ক্র্যাম্প এবং স্নায়বিক পেটের অবস্থা যার মধ্যে অন্তর্ভুক্ত। এটি আলসারেরও চিকিৎসা করে। অন্যান্য সমস্ত উপসর্গের সাথে আলসার ভেন্ট্রিকল এবং ডুওডেনালের সমস্যা দুর করে।
(৮) হাইড্রাস্টিস ক্যানাডেনসিস (Hydrastis Canadensis) :   এটি অন্ত্রের অঙ্গের কাজ নিয়ন্ত্রণ করার জন্য শরীরের শক্তি বাড়ায়। এটি ব্যথা হ্রাস করে এবং সমস্ত মধ্য অঙ্গের সমস্ত দীর্ঘস্থায়ী ক্যাটরসের বিরুদ্ধে দাঁড়ায়, ব্যথা এবং বাধা হ্রাস কওে পরিস্থিতি, এবং ভাল স্টিপটিক গুণাবলী দেখায়।
(৮) হাইড্রাস্টিস ক্যানাডেনসিস (Hydrastis Canadensis) : এটি শরীরের শক্তি বাড়ায় ও অন্ত্রের অঙ্গগুলির কাজকে নিয়ন্ত্রণ করে এবং সমস্ত মধ্যম অঙ্গগুলির সমস্ত দীর্ঘস্থায়ী ক্যাটারাসের চিকিৎসা করে, ব্যথা এবং বাধাযুক্ত পরিস্থিতিতে উপশম করে ও ভাল স্টিপটিক গুণাবলী দেখায়।

আরও পড়ুন –  র‌্যাক্স নং- ৭৭ (পাকস্থলীর আলসার)

অ্যাডাল ১৬ ঔষধ সেবন বিধি : প্রাপ্ত বয়স্করা জন্য ১৫ থেকে ২০ ফোঁটা, শিশুরা ৭ থেকে ১০ ফোঁটা ঔষধ ১/৪ কাপ পানিতে মিশিয়ে দিনে ৩ বার অথবা রেজিষ্টার্ড হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসকের পরামর্শে সেবন করতে হবে।
চিকিৎসকের কিছু পরারর্শ : ওষুধ খাওয়ার সময় মুখের কোনো তীব্র গন্ধ যেমন কফি, পেঁয়াজ, শিং, পুদিনা, কর্পূর, রসুন ইত্যাদি এড়িয়ে চলুন। খাবার/পানীয়/অন্য কোনো ওষুধ এবং অ্যালোপ্যাথিক ওষুধের মধ্যে অন্তত আধা ঘণ্টার ব্যবধান রাখুন।
শর্তাবলী : কম্বেনেশন হোমিওপ্যাথি ঔষধগুলি সাধারণত লক্ষণে উপর ভিভি করে ব্যবহার করা হয়। মনে রাখবেন হোমিওপ্যাথিক সদৃশ্য বিধান একটি চিকিৎসা ব্যবস্থা, বেশি লক্ষণে সঙ্গে মিলিলে তবেই ব্যবহার যোগ্য। তা না হলে অবস্থার উপর নির্ভর করে ফলাফল পরিবর্তিত হতে পারে।
পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া : এই ঔষধ সেবনে কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই।
সতর্কতা : সুস্ক ও শীতল স্থানে সুগন্ধ-দুগন্ধ, আলো-বাতাস থেকে দুরে, শিশুদের নাগালের বাহিরে রাখুন।
আরোগ্য হোমিও হল এডমিন : আজকের আলোচনা এখানেই শেষ করলাম। আশা করি আপনারা বুঝতে পেরেছেন। নতুন কোনো স্বাস্থ্য টিপস নিয়ে হাজির হবো অন্য দিন। এই ওয়েবসাইটে প্রকাশিত তথ্যগুলো কেবল স্বাস্থ্য সেবা সম্বন্ধে জ্ঞান আহরণের জন্য। অনুগ্রহ করে রেজিষ্টার্ড হোমিওপ্যাথিক পরামর্শ নিয়ে ওষুধ সেবন করুন। চিকিৎসকের পরামর্শ ছাড়া ওষুধ সেবনে আপনার শারীরিক বা মানসিক ক্ষতি হতে পারে। প্রয়োজনে, আমাদের সহযোগিতা নিন।  এই ওয়েব সাইটটি কে কোন জেলা বা দেশ থেকে দেখছেন “লাইক – কমেন্ট” করে জানিয়ে দিন। যদি ভালো লাগে তবে “শেয়ার” করে আপনার বন্ধুদের জানিয়ে দিন।  সবাই সুস্থ্য, সুন্দর ও ভালো থাকুন। নিজের প্রতি যত্নবান হউন এবং সাবধানে থাকুন।  আমাদের সাথে থাকার জন্য ধন্যবাদ।


এ জাতীয় আরো খবর.......
Design & Developed BY FlameDev